পদ্মাসেতু-মেট্রোরেল-কর্ণফুলী টানেল খুলবে এ বছরেই
পদ্মাসেতু-মেট্রোরেল-কর্ণফুলী টানেল খুলবে এ বছরেই

সংগৃহীত ছবি

পদ্মাসেতু-মেট্রোরেল-কর্ণফুলী টানেল খুলবে এ বছরেই

অনলাইন ডেস্ক

পদ্মাসেতু-মেট্রোরেল-কর্ণফুলী টানেল এ বছরেই জনসাধারণের চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হবে।  প্রকল্পগুলো উন্মুক্ত হলে জিডিপি প্রবৃদ্ধি ২ থেকে ২.৫০ শতাংশ বাড়বে। এ কথা জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

মঙ্গলবার (৪ জানুয়ারি) জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় প্রকল্পগুলো খুলে দেওয়ার বিষয়ে কথা বলা হয়।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অংশগ্রহণ করেন প্রধানমন্ত্রী।

সভা শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান সংবাদ সম্মেলন করে বৈঠকের বিস্তারিত জানান।

একনেক বৈঠকে ১১ হাজার ২১১ কোটি ৪৪ লাখ টাকার ১০টি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রকল্পগুলোর মোট ব্যয় ১১ হাজার ২১১ কোটি ৪৪ লাখ টাকা।

পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম বলেন, এ বছরের জুনে জনসাধারণের জন্য খুলে দেওয়া হবে পদ্মাসেতু। চট্টগ্রামের বঙ্গবন্ধু টানেল খুলে দেওয়া হবে অক্টোবর মাসে। চলতি বছরের ডিসেম্বরে রাজধানীতে চালু হবে মেট্রোরেল।

একনেক সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানিয়েছেন, যানজট নিরসনে রাজধানী ঢাকার মতো চট্টগ্রামেও মেট্রোরেল নির্মাণ করা হবে। এছাড়া দেশের বড় শহরগুলোতে যেখানে বিমানবন্দর আছে সেখানেও মেট্রোরেল হবে বলে জানান তিনি।

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, ইতোমধ্যে প্রাথমিক কাজ শুরু হয়েছে। আশা করি, দ্রুত সময়ে সংশ্লিষ্টরা চট্টগ্রামে মেট্রোরেল নির্মাণ প্রকল্প একনেক সভায় পাঠাবেন। আমরাও এটা অনুমোদন করে দেবো।

যেসব শহরে বিমানবন্দর আছে, সেখানেও মেট্রোরেল হতে পারে। এই বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে জানান পরিকল্পনামন্ত্রী।

আরও পড়ুন:

বসুন্ধরার কম্বল পেল গোদাগাড়ীর শীতার্ত মানুষ

news24bd.tv/  তৌহিদ