নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনে বাড়ছে উত্তাপ

নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনে বাড়ছে উত্তাপ

ডেস্ক রিপোর্ট

নির্বাচনের দিন যতই এগিয়ে আসছে, ততই বাড়ছে উত্তেজনা। প্রধান দুই মেয়র প্রার্থী তো বটেই, কাউন্সিলর প্রার্থী আর সংরক্ষিত নারী আসনের প্রার্থীরাও প্রচারণায় নেমেছেন বেশ জোরেশোরেই। তবে, সব ছাপিয়ে দুই মেয়র প্রার্থী-নৌকা প্রতীকের ডা. সেলিনা হায়াত আইভী ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হাতি প্রতীকের অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার দিকেই নজর রাজনৈতিক দলগুলো থেকে শুরু করে গণমানুষের।  

গণসংযোগে  কেবল একে অন্যের প্রতি অভিযোগই জানাচ্ছেন না, বরং নিজের সক্ষমতা ও প্রতিদ্বন্দ্বীর দুর্বলতাগুলোও খুঁজে বের করার চেষ্টা করছেন দুই প্রার্থী।

সকাল থেকে রাত পর্যন্ত এমন প্রচার প্রচারণায় ব্যস্ত সময় কাটছে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের প্রার্থীদের। নাওয়া খাওয়া ভুলে তারা ছুটছেন ভোটারদের মন জয়ে। তুলে ধরছেন নিজের সক্ষমতা ও বিপক্ষ শিবিরের দুর্বলতার খতিয়ান। সকালে গণসংযোগে গিয়ে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীর বক্তব্য, বিএনপি চেয়ারপারর্সনের উপদেষ্টার পদ থেকে তৈমুরকে প্রত্যাহারের বিষয়টি বিএনপির কৌশল। বলেন, আওয়ামীলীগে নেতৃত্বের প্রতিযোগিতা থাকলেও কোন্দল নেই।

অন্যদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার গণসংযোগ করেছেন ৪নাম্বার ওয়ার্ডের সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল এলাকায়। এসময় গত ১৮ বছরে সিটি করপোরেশনের ব্যর্থতার কথা তুলে ধরে নিজের জয়ের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসের কথা জানান তিনি।  আর ভোটাররা নিজেদের পাশে যাকে পাবেন সবসময়, তাকেই ভোট দেবেন বলে জানিয়ে দেন।

এদিকে,  গোয়েন্দা সংস্থা ডিজিএফআইয়ের নামে তৈমূর আলম খন্দকারের কাছে পাঁচ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করায় একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।  

news24bd.tv/আলী

;