জ্বালানি তেল নিয়ে বিক্ষোভের জেরে কাজাখস্তানের সরকারের পতন
জ্বালানি তেল নিয়ে বিক্ষোভের জেরে কাজাখস্তানের সরকারের পতন

সংগৃহীত ছবি

জ্বালানি তেল নিয়ে বিক্ষোভের জেরে কাজাখস্তানের সরকারের পতন

অনলাইন ডেস্ক

জ্বালানি তেল নিয়ে বিক্ষোভের জেরে কাজাখস্তানের সরকারের পতন হয়েছে। বুধবার দেশটির প্রেসিডেন্ট কাশিম-জোমার্ট তোকায়েভ মন্ত্রীপরিষদকে বরখাস্ত করেছেন। সেইসঙ্গে  দেশটির বিভিন্ন শহরে জরুরি অবস্থা জারির ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। আসমা তুলির ডেস্ক রিপোর্ট।

মঙ্গলবার রাতেও এমন উত্তপ্ত ছিলো কাজাখস্তানের সবচেয়ে বড় শহর আলমাতি। এ সময় বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে দিতে পুলিশ কাঁদানো গ্যাস ও স্টান গ্রেনেড ব্যবহার করে। এতে পুলিশ ও বিক্ষোভকারীদের মধ্যে বাধে সংঘর্ষ। আহত হন বেশ কয়েকজন। মূলত জ্বালানি তেলের মূল্য বাড়ায় সরকারের পতনের দাবিতে সাম্প্রতিক জনরোষ গণবিক্ষোভে রূপ নেয়।  

এ  ঘটনায় প্রধানমন্ত্রী আসকার মমিনের নেতৃত্বধীন সরকার পদত্যাগ করে। বুধবার আসকার সরকারের পদত্যাগ পত্র গ্রহণ করার কথা জানান প্রেসিডেন্ট কাসেম জোমার্ট তোকায়েভ । সেইসঙ্গে ভারপ্রাপ্ত মন্ত্রীসভাকে লিকুইড পেট্রোলিয়াম গ্যাস-এলপিজির মূল্য নিয়ন্ত্রণে কাজ করার  নির্দেশ দেন তিনি।

আরও পড়ুন:

ইউক্রেন ইস্যুতে আলোচনায় বসছে ন্যাটোভুক্ত দেশগুলোর পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা

৩ ট্রিলিয়নের মাইলফলকে অ্যাপল

এখানেই শেষ নয়, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে  আলমাতি, মাঙ্গিসতাউসহ কয়েকটি শহরে  জরুরি অবস্থা জারি করা হয়।

গেল শনিবার  দেশটিতে গাড়ির জনপ্রিয় জ্বালানি- এলপিজির দাম দ্বিগুণেরও বেশি বৃদ্ধিতে  রোববার তেল সমৃদ্ধ পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশের মাঙ্গিসতাউয়ে বিক্ষোভ শুরু হয়। পরে তা আলমাতিসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত