লন্ডনের চিড়িয়াখানায় শুরু হয়েছে পশুপাখিদের বার্ষিক গণনা
লন্ডনের চিড়িয়াখানায় শুরু হয়েছে পশুপাখিদের বার্ষিক গণনা

সংগৃহীত ছবি

লন্ডনের চিড়িয়াখানায় শুরু হয়েছে পশুপাখিদের বার্ষিক গণনা

অনলাইন ডেস্ক

প্রতিবছরের মতো এবারও বিশ্বখ্যাত লন্ডনের চিড়িয়াখানায় শুরু হয়েছে পশুপাখিদের বার্ষিক গণনা। গরিলা থেকে পিঁপড়া, কোনো প্রাণীই বাদ পড়ছেনা এ হিসেব থেকে। ৪শর বেশি প্রজাতির বার্ষিক নিরীক্ষা শেষ হতে সময় লাগবে প্রায় এক সপ্তাহ। আর সেই নথি ভাগ করা হবে বিশ্বের অন্যান্য চিড়িযাখানাগুলোর সাথে।

 

বিশ্বের সবচেয়ে প্রাচীনতম বৈজ্ঞানিক চিড়িয়াখানা হচ্ছে লন্ডন জু। যা প্রথম চালু হয়েছিল ২৭ এপ্রিল ১৮২৮ সালে। ১৯৩ বছর আগে। সময়ের সাথে সাথে বিশ্বের এক অন্যতম চিড়িয়াখানা হয়ে উঠেছে জেডএসএল লন্ডন জু।

যুক্তরাজ্যে আরও অনেক চিড়িয়াখানায় রয়েছে। কিন্তু কোনোটাই আকার ও প্রাণী প্রজাতির প্রাপ্যতা কোনো দিক থেকেই লন্ডনের চিড়িয়াখানার মতো ব্যাপক নয়। প্রতিবছরই একটি বার্ষিক হিসেব করা হয় ঐতিহাসিক এই চিড়িখানায়। আর এবছরের গণনা শুরু হলো ৪ জানুয়ারি থেকে। শেষ হতে হতে কেটে যাবে পুরো এক সপ্তাহ।

করোনা মহামারীর জন্য ২ কোটিরও বেশি পাউন্ড ক্ষতি হয়েছে লন্ডন চিড়িযাখানার। তবে দর্শনার্থীদের সংখ্যা আবারও বাড়ছে। যার কারণে স্বস্তির নিঃশাস ফেলছে কতৃপক্ষ।

আরও পড়ুন:

ইউক্রেন ইস্যুতে আলোচনায় বসছে ন্যাটোভুক্ত দেশগুলোর পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা

৩ ট্রিলিয়নের মাইলফলকে অ্যাপল

অনেক লোকই এটা বুঝতে পারেনা যে এটা একটি দাতব্য সংস্থা। কোনো সরকারি তহবিল পাইনা আমরা। যারা অনুদানের মাধ্যমে অবদান রেখেছেন এবং এখনো রাখছেন, তাদের প্রতি আমরা সত্যিই কৃতজ্ঞ।

এই চিড়িয়াখানায় শুরুর দিকে অনেক বিচিত্র প্রাণীর আবাসস্থল ছিল। এখানে বসবাসকারী প্রজাতিদের ওপর বহু নিয়মিত গবেষণা করেছেন বহু প্রখ্যাত জৈব বিজ্ঞানী এবং গবেষকরা।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত