হেফাজতের ভাঙচুর: কারাগারে থেকেই চেয়ারম্যান নির্বাচিত
হেফাজতের ভাঙচুর: কারাগারে থেকেই চেয়ারম্যান নির্বাচিত

কারাগারে থাকা নির্বাচিত চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম

হেফাজতের ভাঙচুর: কারাগারে থেকেই চেয়ারম্যান নির্বাচিত

অনলাইন ডেস্ক

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পঞ্চমধাপে ইউপি নির্বাচনে সদর ও আশুগঞ্জ উপজেলার ১৮টি ইউনিয়নের ৬টিতে জয় পেয়েছে আওয়ামী লীগ এবং ১২টিতে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী।

এর মধ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সদর উপজেলার তালশহর পূর্ব ইউনিয়নে ১৪ মামলায় কারাগারে থেকেই নির্বাচিত হয়েছেন মনিরুল ইসলাম। তিনি সদর উপজেলা ইসলামী ঐক্যাজোটের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। হেফাজতে ইসলামের ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ১৪ মামলায় বর্তমানে কারাগারে আছেন মনিরুল।

বুধবার (০৫ জানুয়ারি) অনুষ্ঠিত নির্বাচনে তিনি চশমা প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। মনিরুল ইসলাম ৩৯৬১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আব্দুস সালাম পেয়েছেন ২৪৭২ ভোট পেয়েছেন।

জেলা কারাগার সূত্রে জানা গেছে, হেফাজত তাণ্ডবের পৃথক ১৪টি মামলার আসামি হয়ে গত বছরের ২২ জুন থেকে তিনি কারাগারে আছেন। ইতোমধ্যে ১৩টি মামলায় জামিন হয়েছে মনিরুলের। তবে একটি মামলায় এখনও তার জামিন না হওয়ায় কারামুক্ত হতে পারেননি। ফলে কারাগারে বসেই ভোটে লড়েছেন ইসলামী ঐক্যজোটের এ নেতা। তার পক্ষে পরিবারের সদস্যরা এবং দলীয় নেতাকর্মীরা নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়েছেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ইসলামী ঐক্যজোটের যুগ্ম সম্পাদক মুফতি এনামুল হাসান জানান, পরিবারের সদস্যদের পাশাপাশি ইসলামী ঐক্যজোট এবং ছাত্র খেলাফতের স্থানীয় নেতারা মনিরুলের নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়েছেন। জনপ্রিয়তার কারণে কারগারে থেকেও বিজয়ী হয়েছেন তিনি।

এদিকে নির্বাচনের আগে কারাগারের জানালায় দাঁড়িয়ে থাকা একটি ছবি দিয়ে তার পক্ষে ভোট চেয়ে ফেসবুকে প্রচারণা চালানো হলে তা ভাইরাল হয়।

সে পোস্টে বলা হয়, আপনার একটি ভোট মজলুমের কারামুক্ত হতে পারে। জীবনে অনেক ভোট দিয়েছেন, বেঁচে থাকলে আরও ভোট দেবেন। কিন্তু আগামীকাল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আপনার একটি ভোট নিরপরাধ মনির ভাইকে মায়ের কোলে ফিরিয়ে দিতে সহায়ক হতে পারে।

তার শতবর্ষী মা ছেলের জন্য এখনো কেঁদে কেঁদে হাঁপিয়ে ওঠে। আপনারা কি পারবেন না বৃদ্ধা মায়ের চোখের জল মুছতে? আপনার ভোট হোক মা-ছেলের পুনর্মিলনের জন্য।

আরও পড়ুন


সেই সহকারি শিক্ষককে সাময়িক বহিস্কার, তদন্ত কমিটি গঠন

news24bd.tv এসএম