কুষ্টিয়ায় প্রকৌশলী ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা
কুষ্টিয়ায় প্রকৌশলী ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

প্রতীকী ছবি

কুষ্টিয়ায় প্রকৌশলী ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

জাহিদুজ্জামান, কুষ্টিয়া:

অবৈধ সম্পদের অর্জন ও দখলের তথ্য পেয়ে কুষ্টিয়া সড়ক বিভাগের সাবেক উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো. মনিরুল ইসলাম (৩৬) ও তার স্ত্রী আফরোজা খাতুন মুক্তা (৩৪) এর বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

বৃহস্পতিবার (০৬ জানুয়ারি) দুপুরে কুষ্টিয়া দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে মামলাটি করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কুষ্টিয়া দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপপরিচালক মো. জাকারিয়া।

মামলায় আসামি মনিরুল ইসলাম ও তার স্ত্রী আফরোজা খাতুন মুক্তা কুষ্টিয়া সদর উপজেলার হরিনারায়নপুর ইউনিয়নের বেড়বাড়াদি গ্রামের বাসিন্দা।

বর্তমানে তারা কুষ্টিয়া শহরের গোরস্থান পাড়ায় তাদের বাসা রয়েছে। মনিরুল বর্তমানে ঢাকায় সড়ক উপ-বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশলী হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।  

আরও পড়ুন: নোয়াখালীতে হাসপাতালের ডোবা থেকে রোগীর মরদেহ উদ্ধার

দুদক সূত্রে জানা গেছে, কুষ্টিয়া সড়ক বিভাগের সাবেক উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো. মনিরুল ইসলাম তার কর্মজীবনের জ্ঞাত আয় বহির্ভূত ২ কোটি ৯৭ লাখ ৩১ হাজার ৪৪৯ টাকা সম্পদ অর্জন করেছেন। অভিযোগ। দুদকের প্রাথমিক অনুসন্ধান ও তদন্তে তার সত্যতা পাওয়া যায়। তদন্তে উঠে আসে অপরাধমূলক অসদাচরণের মাধ্যমেই কর্মজীবনে তিনি এ সম্পদ অর্জন করেন। সম্পদের উৎসের বিষয়ে মনিরুলও দুদককে সন্তোষজনক ব্যাখ্যা দিতে ব্যর্থ হন।

এরই প্রেক্ষিতে ২০০৪ সালের দুর্নীতি দমন কমিশন আইনের ২৭(১) ধারা তৎসহ দন্ডবিধির ১০৯ ধারায় এ মামলাটি করা হয়েছে। কুষ্টিয়া জেলা কার্যালয়ের উপ পরিচালক মো. জাকারিয়া বাদী হয়ে মামলাটি করেছেন।

তিনি বলেন, আইন অনুযায়ী কুষ্টিয়া সড়ক বিভাগের সাবেক উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো. মনিরুল ইসলাম ও তার স্ত্রী আফরোজা খাতুন মুক্তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

news24bd.tv/ কামরুল 

;