হাসপাতালে স্ত্রীর মরদেহ রেখে পালালেন স্বামী
হাসপাতালে স্ত্রীর মরদেহ রেখে পালালেন স্বামী

প্রতীকী ছবি

হাসপাতালে স্ত্রীর মরদেহ রেখে পালালেন স্বামী

কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এক গৃহবধূর মরদেহ রেখে পালিয়ে গেছেন তার স্বামী আক্তার হোসেন। স্ত্রীর নাম লাকি আক্তার (২২)।

বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) সকালে খবর পেয়ে লাকির পরিবারের সদস্যরা হাসপাতালে এসে মরদেহ পান।

নিহত লাকি আক্তার বরুড়া উপজেলার দেওড়া এলাকার মুকলেস হোসেন ভূঁইয়ার ছোট মেয়ে।

তার স্বামী আক্তার হোসেন ব্রাহ্মণপাড়া এলাকার বাসিন্দা।

জানা গেছে, লাকি ও তার স্বামী আক্তার দুজনই বিসিক শিল্পনগরীর একটি কারখানায় কাজ করার সময় তাদের পরিচয় হয়। এক বছর আগে প্রেমের সম্পর্কের পর বিয়ে হয় তাদের।

লাকির ভাই সুজন বলেন, আমার বোনকে আক্তার টাকার জন্য নিয়মিত মারধর করত। গতরাতেও মারধর করেছে। সকালে আমাদের কল দিয়ে বলে লাকি মারা গেছে। তারপরও সে পালিয়ে যায়।

লাকির বাবা মুকলেস বলেন, আক্তার আমার মেয়েকে নিয়ে নগরীর গোবিন্দপুরে ভাড়া থাকত। লাকি বিসিক থেকে ইপিজেডে কাজ করে কয়েক মাস ধরে। আক্তার মাদকাসক্ত ছিল। আগেও একটি বিয়ে করেছে। আমার মেয়েকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ে করে। সে আমার মেয়েকে পরিকল্পিতভাবে খুন করেছে। এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত দাবি করছি।

কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মেহেদী হাসান জানিয়েছেন, খবর পেয়ে মরদেহ হাসপাতাল থেকে মর্গে নেওয়া হয়। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট আসলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

আরও পড়ুন: 

তাড়াশে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ পেল বসুন্ধরার কম্বল

news24bd.tv/তৌহিদ