হাসপাতালের ‘নিষ্ঠুরতায়’ শিশু মৃত্যুর অভিযোগ

হাসপাতালের ‘নিষ্ঠুরতায়’ শিশু মৃত্যুর অভিযোগ

মৌ খন্দকার

টাকা দিতে না পারায় রাজধানীতে এক হাসপাতাল থেকে দুই যমজ শিশুকে বের করে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। এতে এক শিশুর মৃত্যুও হয়েছে। পরে এ ঘটনায় মামলা হলে অভিযুক্ত হাসপাতালের মালিককে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব।

ঠান্ডাজনিত রোগে অসুস্থ থাকায় যমজ দুই শিশুকে ২ জানুয়ারি শ্যামলীর বেসরকারি হাসপাতাল আমার বাংলাদেশ-এ ভর্তি করেন মা আয়েশা বেগম।

তার দাবি, ওই হাসপাতালের এনআইসিইউতে রেখে ছয় দিন চিকিৎসা দেওয়ার পর তারা ১ লাখ ২৬ হাজার টাকা দাবি করে৷ কয়েক দফায় ৪০ হাজার টাকা দেওয়া হলেও তারা বাকি টাকার জন্য চাপ দেয়৷

আয়েশা বেগমের দাবি, টাকা দিতে দেরি হওয়ায় বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টার দিকে তাদের হাসপাতাল থেকে বের করে দেওয়া হয়। এতে পথে আহমেদ নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়।

আরও পড়ুন : ঠোঁট ফাটছে? জেনে নিন  মুক্তির উপায়

আরও পড়ুন : শীতে গায়ে সরিষা তেল মাখলে কী হয়?

এ ঘটনায় মোহাম্মদপুর থানায় অবহেলাজনিত মৃত্যুর মামলার পর ওই হাসপাতালের মালিককে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব। সংস্থাটি বলছে, দালালদের মাধ্যমে বিভিন্ন সরকারি হাসপাতাল থেকে রোগী আনতো হাসপাতালটির মালিক।

র‌্যাব জানায়, প্রতিষ্ঠানটিতে বিলের কোনো ভাউচার দেয়া হয় না। বরং মালিকের ইচ্ছেমতো বিল আদায় করা হতো। রয়েছে নানা অনিয়মও।

অভিযুক্ত গোলাম সারওয়ার ২০০০ সাল থেকে ৬টি হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা করেছে বলে জানিয়েছে র‍্যাব। কোনো অভিযোগ আসলেই পুরনোটি বন্ধ করে নতুন হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা করতেন তিনি।

news24bd.tv/আলী

;