সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ১২ মিনিট আগে

মাদারীপুরে পাগলা কুকুরের কামড়ে আহত ৪০

মাদারীপুর প্রতিনিধি

মাদারীপুরে পাগলা কুকুরের কামড়ে আহত ৪০

মাদারীপুর সদর ও কালকিনি উপজেলার দুটি গ্রামে একটি পাগলা কুকুরের কামড়ে শিশু-নারীসহ প্রায় ৪০ জন আহত হয়েছে। আহতদের মাদারীপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

হাসপাতাল ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত ৭ দিনে সদর উপজেলার ঝাউদি ইউনিয়নের হোগলপাতিয়া গ্রামে ও পার্শ্ববর্তী কালকিনি উপজেলার উত্তর কানাইপুর গ্রামে একটি পাগলা কুকুরের কামড়ে শিশু-নারী ও পুরুষসহ প্রায় ৪০ জন আহত হয়েছে।

আহতরা হলেন- মোকবুল হোসেন (৪৫), শাকিল ঢালী (৩০), মিনারা বেগম (২৭), সোমেলা বেগম (৬০), মোকসেদ মাদবর (৫৫), শাহিন কাজি (২৮), তামান্না (৮), বায়জিদ (১০), রাজিব হোসেন (২১), তামিম (৭), পারভীন বেগম (৪০), রিমা (১৯), সেফালী বেগম (৩২), মারিয়া (৭), কাওসার (২০), হাসিবুল (২৪), আনুরা বেগম (৬০), পুতুল (১৪), বাদল (৩৮), রাহুল (৭), কনক (১১), আসিফ (১১), পারুল বেগম (৩০) প্রমুখ। কুকুরের কামড়ের আঘাতপ্রাপ্তরা মাদারীপুর সদর হাসপাতাল থেকে প্রথমিকভাবে চিকিৎসা নিয়েছে।

কুকুরের কামড়ে আঘাতপ্রাপ্ত মকবুল হোসেন বলেন, আমি ভোরে মসজিদ থেকে ফজরের নামাজ পড়ে বাড়ি যাচ্ছিলাম। কুকুরটি পিছন থেকে এসে আমাকে কামড় দিয়ে চলে যায়।

কুকুরের কামড়ে আঘাতপ্রাপ্ত মিনারা বেগম বলেন, আমি বাড়ির উঠানে কাজ করতে ছিলাম। হঠাৎ পিছন থেকে একটা কুকুর এসে আমার পায়ে কামড় দিয়ে মাংস নিয়ে চলে যায়। পা দিয়ে অনেক রক্ত ঝরেছে।

মাদারীপুর সদর হাসপাতালের জলাতঙ্ক নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্রের নার্সিং কর্মকর্তা মো. সামসুল হক বলেন, যে কুকুরটি এতগুলো মানুষকে কামড় দিয়েছে সেটা অবশ্যই পাগলা। কামড়ে আঘাতপ্রাপ্তরা আমাদের কাছে এসে সরকারি ভ্যাকসিন দিয়ে গেছে।

মাদারীপুর সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগের ডাক্তার মো. রিয়াদ মাহমুদ বলেন, কুকুরটি সম্ভবত রাস্তার আশপাশের বিষাক্ত ময়লা আবর্জনা খাওয়ার ফলে মাথায় সমস্যা হয়েছে। এজন্যই এলোপাতারি মানুষকে কামড় দিয়েছে। পাগলা কুকুরের কামড়ে জলাতঙ্ক রোগ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। যাদের কামড় দিয়েছে তাদের ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/বেলাল/তৌহিদ)

মন্তব্য