সীতাকুণ্ডে চোরাই বিটুমিনের ডিপোসহ আটক ৩
Breaking News
সীতাকুণ্ডে চোরাই বিটুমিনের ডিপোসহ আটক ৩

উদ্ধারকৃত চোরাই বিটুমিন

সীতাকুণ্ডে চোরাই বিটুমিনের ডিপোসহ আটক ৩

অনলাইন ডেস্ক

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড থানার বাংলাবাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১৫ হাজার ৪৫০ লিটার চোরাই বিটুমিনসহ তিনজনকে আটক করেছে র‌্যাব-৭।  

আটক মো. ইরফান (২৩), ফেনী জেলার ফেনী সদর থানার ডুমোরগাঁও এলাকার মো. ইউসুফের ছেলে। তিনি নগরের সদরঘাট থানার পশ্চিম মাদারবাড়ী এলাকায় বসবাস করেন। মো. ইসরাফিল হাসান (২৩), কুমিল্লা জেলার চৌদ্দগ্রাম থানার আকুদিয়া এলাকার মৃত মনছুর আহাম্মদের ছেলে।

তিনি সীতাকুণ্ড থানার বাংলাবাজার বাইপাস এলাকায় বসবাস করেন। এবং মো. শাহআলম (৬২), একই জেলার নাঙ্গলকোট থানার অষ্টগ্রাম এলাকার মৃত আব্দুস সোবাহানের ছেলে। তিনি নগরের আকবরশাহ্ থানার বিশ্বকলোনি এলাকায় বসবাস করেন।

র‌্যাব-৭ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল এমএ ইউসুফ জানান, গত ৩ জানুয়ারি গভীর রাতে সীতাকুণ্ড থানার বাংলাবাজার এলাকার সুকতার মোড়ে মো. ইরফানের একটি অবৈধ বিটুমিন ডিপো আবিষ্কার করা হয়। ডিপুটি চারপাশ প্রাচীর দ্বারা ঘেরা। গোপন তথ্যের ভিত্তিতে সোমবার গভীর রাতে অভিযান চালানো হয়।

এ সময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে র‌্যাব সদস্যরা তিনজনকে আটক করে। ডিপু থেকে আনুমানিক ১০ লাখ টাকা দামের ১৫ হাজার ৪৫০ লিটার চোরাই বিটুমিন উদ্ধার করা হয়। এছাড়াও কয়েকটি বৃহদাকার লোহার তৈরি ট্যাং, গ্যাস সিলিন্ডার, বিটুমিন সরবরাহের পাইপসহ বিপুল পরিমাণ সরঞ্জামাদি আটক করা হয়।

আরও পড়ুন:

পাকিস্তানে ভারি তুষারপাতে গাড়ির ভেতরে আটকা পড়ে অন্তত ২১ জন নিহত

ভারতের পাঁচ রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা  

আসামিরা দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে বিভিন্ন উপায়ে চোরাই বিটুমিন মজুদ করে ক্রেতাদের কাছে বিক্রি করে আসছে। মো. ইরফানকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় তিনি দীর্ঘ ৪-৫ বছর ধরে স্থানীয় প্রভাবশালী লোকদের হাত করে অবৈধ বিটুমিনের ব্যবসা করছেন।  

পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আসামিদের সাথে জব্দ করা পণ্যসামগ্রী সীতাকুণ্ড থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত   

;