লাখ-লাখ নয়, কোটি-কোটি মানুষ বেকার:  জি এম কাদের
লাখ-লাখ নয়, কোটি-কোটি মানুষ বেকার:  জি এম কাদের

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় উপনেতা জি এম কাদের

লাখ-লাখ নয়, কোটি-কোটি মানুষ বেকার:  জি এম কাদের

অনলাইন ডেস্ক

দেশের পরিস্থিতি সার্বিকভাবে ভালো নয় মন্তব্য করে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় উপনেতা জি এম কাদের বলেছেন, মানুষের জীবনের কোনো নিরাপত্তা নেই। মানুষের ইজ্জতের কোনো মূল্য নেই। ঘর থেকে বের হলে দুর্ঘটনা ঘটছে। বেকার সমস্যার কারণে মাদক কারবারি বাড়ছে।

কোটি কোটি মানুষ মাদকের দিকে চলে যাচ্ছে। এটা আগামী প্রজন্মের জন্য ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি করতে পারে।

মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারি) দুপুরে রংপুর সার্কিট হাউসে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে জি এম কাদের আরও বলেন, লাখ লাখ নয়, ‘কোটি কোটি মানুষ বেকার। বেকার সমস্যা একটা চরম পর্যায়ে চলে গেছে। আমি অবজার্ভ করে দেখেছি, মানুষ ফুটপাতের অর্ধেকটা দখল করে থাকে কেন? বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাস করা ছেলেরা ফুটপাতে বসে হকারি করছে। তারা স্কুটার চালায়, সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালায়। পাঠাও বা উবার চালিয়ে তারা জীবিকা নির্বাহের চেষ্টা করে। বেকার সমস্যা এমন একটা পর্যায়ে গেছে যে, মানুষ তাদের ভিটেমাটি বিক্রি করে ছেলেদের বিদেশে পাঠাতে বাধ্য হচ্ছে। ’

‘এবার ওমিক্রন যদি বড় ধরনের আঘাত হানে তাহলে আমরা সম্পূর্ণ প্রস্তুত, এ কথা বলা ঠিক হবে বলে মনে হয় না। বলেন জি এম কাদের।

তিনি বলেন,  আমাদের স্বাস্থ্যব্যবস্থা কতটা নাজুক তা গতবার করোনা পরিস্থিতিতে বোঝা গেছে। আমরা মনে করি, সরকারকে এখনই এ বিষয়ে দৃষ্টি দিতে হবে। উপজেলা পর্যায়ে আইইসিইউ সুবিধা, সব মানুষকে টিকার আওতায় আনা ও উন্নত বিশ্ব যেভাবে ব্যবস্থা নিচ্ছে সেভাবে ব্যবস্থা গ্রহণের কথা আমরা বারবার বলেছি। কিন্তু সরকার যেটা করেছে সেটা যথেষ্ট নয়।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, বর্তমান নির্বাচন কমিশন নির্বাহী বিভাগকে কাজে লাগাতে পারছে না। অথচ সংবিধানের ১২৬ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী নির্বাহী বিভাগ নির্বাচনসংক্রান্ত বিষয়ে নির্বাচন কমিশনকে সহযোগিতা করবে। কিন্তু বাস্তবে চিত্র উল্টো। কমিশন এই ধারা ব্যবহার করতে পারছে না। নির্বাচন কমিশন নির্দেশ দিলেও নির্বাহী বিভাগ তা পালন করছে না।  

আরও পড়ুন: 

‌‘টিকার সনদ দেখিয়ে রেস্তোরাঁয় খাবার’, প্রতিবাদ রেস্তোরাঁ মালিক সমিতির

বাণিজ্যমেলা চলবে কিনা জানা গেল

news24bd.tv তৌহিদ