বিধবা নারীকে পালাক্রমে ধর্ষণের পর হত্যা: দুই আসামি গ্রেপ্তার
বিধবা নারীকে পালাক্রমে ধর্ষণের পর হত্যা: দুই আসামি গ্রেপ্তার

অভিযুক্ত দুই যুবক

বিধবা নারীকে পালাক্রমে ধর্ষণের পর হত্যা: দুই আসামি গ্রেপ্তার

রাহাত খান, বরিশাল

বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার কেদারপুর ইউনিয়নের ভূতেরদিয়া গ্রামে ৫ সন্তানের জননী মরিয়ম বেগম হত্যায় জড়িত সন্দেহে অভিযুক্ত ২ আসামিকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

হত্যার আগে ওই বিধবা নারীর ঘরে ঢুকে গ্রেফতারকৃতরা তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। ধর্ষণের ঘটনা ফাঁস হওয়ার ভয়ে তাকে তারা লাঠি দিয়ে মাথায় আঘাত করে হত্যা করে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণ করছে পুলিশ।  

গ্রেফতারকৃতরা হলো- একই এলাকার সুমন ফকির (৩৫) ও শয়ন চন্দ্র শীল (১৯)।

পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতাকৃতরা ওই নারীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ এবং ধর্ষণের ঘটনা ফাঁস হয়ে যাওয়ার ভয়ে লাঠি দিয়ে মাথায় আঘাত করে তাকে হত্যার কথা স্বীকার করেছে।  

রোববার (১৬ জানুয়ারি) দুপুরে জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ের এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. শাজাহান।  

পুলিশ সুপার জানান, ভূতেরদিয়া গ্রামে স্বামীর বসত ভিটায় থাকতেন ৫ সন্তানের জননী বিধবা মরিয়ম বেগম। গত ১২ জানুয়ারী বুধবার রাতে মরিয়ম নিজ ঘরে একা ছিলেন।

ওই রাতে পূর্ব পরিচয়ের সূত্র ধরে সুমন ও শয়ন ওই নারীর ঘরে প্রবেশ করে। এক পর্যায়ে তারা ওই নারীকে জোরপূর্বক পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

এ ঘটনা ফাঁস হওয়ার আশংকায় ওই রাতেই তারা তাকে টেনে হিঁচরে ঘর থেকে বাইরে বের করে লাঠি দিয়ে মাথায় আঘাত করে তার মৃত্যু নিশ্চিত করে। পরে তার মরদেহ বাড়ি সংলগ্ন সন্ধা নদীর নালায় ফেলে দেয় তারা। ১৩ জানুয়ারী খবর পেয়ে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করে। কিন্তু এ ঘটনার কোন ক্লু পাচ্ছিলো না পুলিশ। পরে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে সন্দেহভাজন অভিযুক্তকে শনাক্ত করে তারা। এরপর আশপাশের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেফতার করা হয় অভিযুক্ত সুমন ও শয়নকে।

গ্রেফতারকৃতদের আরও ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গতকাল তাদের আদালতে সোপর্দ করে রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. শাজাহান।

আরও পড়ুন


সরকারের সিংহাসন টলমল করছে: রিজভী

news24bd.tv এসএম