গাঁজাভর্তি ব্যাগসহ ধরা ছাত্রলীগ নেতা
গাঁজাভর্তি ব্যাগসহ ধরা ছাত্রলীগ নেতা

গাঁজাভর্তি ব্যাগসহ ধরা ছাত্রলীগ নেতা

অনলাইন ডেস্ক

ভোলা সদর উপজেলায় দুই কেজি গাঁজাসহ এক ছাত্রলীহ নেতাকে আটক করেছে পুলিশ। তার নাম মো. ইয়াছিন আরাফাত। তিনি ইলিশা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক।

মঙ্গলবার (১৮ জানুয়ারি) তাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়।

এর আগে, সোমবার দুপুরে ভোলার ইলিশা ফেরিঘাট এলাকার বেড়িবাঁধের ওপর থেকে ইয়াছিন আরাফাত ও জুয়েল নামের দুই যুবককে আটক করে ইলিশা ফাঁড়ির পুলিশ।

সূত্রে জানা গেছে, সোমবার রাতেই সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফাহিম খন্দকার রাকিব ও সাধারণ সম্পাদক এমআর হ্যাভেন স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ইয়াছিন আরাফাতকে ইলিশা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পদ থেকে অব্যহতি দেওয়া হয়।

ছাত্রলীগের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সংগঠনের শৃঙ্খলা পরিপন্থী কাজে লিপ্ত থাকায় ইয়াছিন আরাফাতকে অব্যহতি দেওয়া হয়েছে।  

ঘটনার ব্যাপারে ভোলা সদর উপজেলার ইলিশা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এসআই মো. ফরিদ জানায়, সোমবার দুপুরের দিকে ভোলার ইলিশা ফেরিঘাটে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশের একটি টিম অভিযান চালায়। এ সময় বেড়িবাঁধের ওপর থেকে মো. জুয়েল মিজি নামের এক যুবককে আটক করা হয়। পরে তার সঙ্গে থাকা একটি স্কুল ব্যাগ ভর্তি দুই কেজি গাঁজা পাওয়া যায়।

তাকে জিজ্ঞাসাবাদে তিনি এই গাঁজা ইলিশা ইউনিয়নের গুপ্তমুন্সি গ্রামের শরিফুল ইসলামের ছেলে ইয়াছিন আরাফাতকে দেওয়ার জন্য এনেছে বলে স্বীকার করেন।

পরে জুয়েলের মাধ্যমে আরাফাতের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। আরাফাত তাকে গাঁজা নিয়ে গুপ্তমুন্সি এলাকায় যেতে বলেন। সেখানে জুয়েলে সেখানে গিয়ে ইয়াছিন আরাফাতের হাতে গাঁজাভর্তি ব্যাগ দিলে পুলিশ গিয়ে দুজনকেই আটক করে।

আরও পড়ুন:

হারুনের এক বক্তব্যেই সংসদে উত্তেজনা, হারুন বললেন...

news24bd.tv তৌহিদ

;