গভীর রাতে চবিতে ছাত্রলীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষ, আহত ১৩
গভীর রাতে চবিতে ছাত্রলীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষ, আহত ১৩

ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ

গভীর রাতে চবিতে ছাত্রলীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষ, আহত ১৩

অনলাইন ডেস্ক

আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষের এই ঘটনায় দুই পক্ষের অন্তত ১৩ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। আহতদের চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টারে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

জানা গেছে, গত ১৩ জানুয়ারি চবি ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে বিশ্ববিদ্যালয় পরিদর্শনে আসেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক হায়দার মোহাম্মদ জিতু এবং উপ-সাংস্কৃতিক সম্পাদক শেখ নাজমুল।

তাদের উপস্থিতে আগামী ২৫ জানুয়ারির আগে শাখা ছাত্রলীগের কমিটি পূর্ণাঙ্গ করার ঘোষণা দেন চবি ছাত্রলীগের সভাপতি রেজাউল হক রুবেল ও সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন টিপু। আর তখন থেকে ক্যাম্পাসজুড়ে চাপা উত্তেজনা বিরাজ করে।

শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সিএফসি পক্ষের নেতা হিসেবে পরিচিত রেজাউল হক রুবেল বলেন, চবি ছাত্রলীগের কার্যক্রমকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে মোহাম্মদ ইলিয়াস (বিজয় পক্ষের নেতা) দীর্ঘদিন ধরে অপচেষ্টা চালাচ্ছেন। আর সেই সূত্র ধরে আজকে সংঘর্ষে জড়িয়েছে।

এবিষয়ে জানতে চাইলে চবি ছাত্রলীগের বিজয় পক্ষের নেতা মোহাম্মদ ইলিয়াস বলেন, পূর্ণাঙ্গ কমিটি না দিতে একটা বাহানা খুঁজছে তারা। আর সেজন্য তারা আমাদের ছেলেদেন উপর হামলা চালিয়েছে। এতে আমাদের বেশ কয়েকজন নেতা-কর্মী আহত হয়েছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর ড. শহীদুল ইসলাম বলেন, দুই গ্রুপের মধ্যে ঝামেলা হয়েছে। আমরা তাদেরকে হলে ঢুকিয়ে দিয়েছি। পরিস্থিতি আমাদের নিয়ন্ত্রণে আছে। ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এর আগে গত ১৩ জানুয়ারি কমিটি গঠনসহ নানা দাবিতে ছাত্রলীগের দুই কেন্দ্রীয় নেতা চবি ক্যাম্পাসে এলে তাঁদের আটকে দেন বিরোধীপক্ষের নেতাকর্মীরা। এ ঘটনার পর আবারও উত্তপ্ত হয়ে ওঠে চবি ক্যাম্পাস।

আরও পড়ুন


বদলে যাচ্ছে ডিবির পোশাক, সহজেই চেনা যাবে আসল-নকল

news24bd.tv এসএম

;