বিচ্ছেদ ঠেকাতে মেয়ে জামাইয়ের দেখা চান রজনীকান্ত, রাজি নয় ধানুশ
বিচ্ছেদ ঠেকাতে মেয়ে জামাইয়ের দেখা চান রজনীকান্ত, রাজি নয় ধানুশ

ধানুশ-ঐশ্বরিয়া ও সুপারস্টার রজনীকান্ত

বিচ্ছেদ ঠেকাতে মেয়ে জামাইয়ের দেখা চান রজনীকান্ত, রাজি নয় ধানুশ

অনলাইন ডেস্ক

দক্ষিণী চলচ্চিত্রের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা ধানুশ কে রাজার সঙ্গে ১৮ বছর আগে বিয়ে হয় সুপারস্টার রজনীকান্তের মেয়ে ঐশ্বরিয়ার। কিন্তু সেই সম্পর্কে চির ধরেছে। জানা গেছে এই দম্পতি বিবাহ বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে এই জুটির বিচ্ছেদের খবরে মন ভেঙেছে ভক্তদেরও।

তবে এরই মধ্যে বেড়িয়ে এলো চাঞ্চল্যকর তথ্য। জানা গেছে, থালাইভা’ খ্যাত রজনীকান্ত নাকি তার মেয়ে জামাইয়ের সঙ্গে দেখা করে কথা বলতে চেয়েছিলেন। কিন্তু ধানুশ রাজি হননি।

ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকার এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য তুলে ধরা হয়েছে।

গণমাধ্যমটি তার প্রতিবেদনে আরও জানায়, সোমবার রাতে ধানুশ এবং ঐশ্বরিয়া লিখেছিলেন, ‘১৮ বছরের একসঙ্গে থাকা। বন্ধু, দম্পতি এবং অভিভাবক হিসাবে। একে অপরের শুভাকাঙ্ক্ষী হিসাবে। এই যাত্রা কেবলই একে অপরের সঙ্গ দেওয়ার, বোঝার ও বেড়ে ওঠার। একে অপরের জন্য নিজেদের মধ্যে ছোট ছোট বদল ঘটানো এবং তারই সঙ্গে মিলেমিশে যাওয়ার দিন ছিল। আজ এই মুহূর্তে আমরা দু’জনে এমন জায়গায় দাঁড়িয়ে আছি, যেখানে আমাদের পথ আলাদা হয়ে গিয়েছে। আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, দম্পতি হিসাবে আলাদা পথে হাঁটব। স্বতন্ত্র ভাবে নিজেদের চেনার জন্য সময় নেব। ’

এদিকে গণমাধ্যমটি তার প্রতিবেদনে সূত্রের খবরের বরাতে বলে, ধনুশ এবং ঐশ্বরিয়া নাকি আইনি বিচ্ছেদের পথে হাটবেন না। তারা আইনের চোখে দম্পতিই থাকতে চান। এক সঙ্গে না থেকেও নিজেদের দুই সন্তান যাত্রা রাজা (১৬) এবং লিঙ্গা রাজার (১২) অভিভাবকত্ব করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

এরই মাঝে আচমকা ধনুষের বাবা তামিল পরিচালক কস্তুরী রাজা জানিয়েছেন, ধনুশ এবং ঐশ্বরিয়ার নাকি বিবাহ বিচ্ছেদ হচ্ছে না। দুই পরিবারের মধ্যে বিবাদ বেঁধেছে কেবল।

সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, রজনীকান্ত তাঁর জামাই ধনুষের সঙ্গে দেখা করে বিবাদ মেটাতে চেয়েছিলেন। কিন্তু ধনুশ শ্বশুরের সঙ্গে সাক্ষাৎ এড়িয়ে গিয়েছেন বার বার। তার কারণ, তিনি রজনীকান্তকে অপমান করতে চান না।

আরও পড়ুন


শ্যালিকাকে অপহরণের পর মরদেহ গোপনে দাফনের চেষ্টা

news24bd.tv এসএম

;