নিজেকে এতিম বলে কাঁদলেন জায়েদ খান
নিজেকে এতিম বলে কাঁদলেন জায়েদ খান

ফাইল ছবি

নিজেকে এতিম বলে কাঁদলেন জায়েদ খান

অনলাইন ডেস্ক

চলতি মাসের ২৮ তারিখে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২২-২৪ মেয়াদের দ্বিবার্ষিক নির্বাচন। আর এই নির্বাচনকে ঘিরে এফডিসিতে যেন কান্নার জোয়ার এসেছে। চিত্রনায়ক রিয়াজ ও অভিনেত্রী নাসরিনের কান্নার পর এবার কেঁদে বুক ভাসালেন জায়েদ খান।  

রোববার (২৩ জানুয়ারি) রাজধানীর একটি কনভেনশন হলে মিশা-জায়েদ প্যানেল পরিচিতি সভায় মা নেই, বাবা নেই ও নিজেকে এতিম মন্তব্য করে কেঁদে ফেলেন তিনি।

এ সময় জায়েদ খান বলেন, আমার মা সদ্য মারা গিয়েছেন। বাবাকেও হারিয়েছে অনেক আগে। আমি এখন এতিম। এই শিল্পী সমিতিই এখন আমার সব। সমিতির সদস্যরাই আমার পরিবার। সমিতির সিনিয়র শিল্পীরা আমার বাবা-মা। তাই যদি ভালো কাজ করে থাকি আমাকে ভোট দিন। মিশা-জায়েদের পুরো প্যানেলকে জয়যুক্ত করুন।  

তিনি বলেন, আমি যে কত এতিম এখন, বোঝাতে পারব না। আমার মা মরার আগে বলে গেছেন, ‘তোমার আর বিয়ে-শাদি লাগবে না, তুমি শিল্পী সমিতি নিয়েই থাকো। ’ আমি অনেক কাজ করেছি, তাই অনেকের চক্ষুশূল হয়ে গেছি।  

জায়েদ খান আরও বলেন, শিল্পী সমিতি এখন আমার ভালোবাসার জায়গা হয়ে গেছে। যে শিল্পী সমিতিতে আমি এসে দেখেছি, নিজের টাকা দিয়ে চা খেতে হয়। সেখানে এখন দুটি কফির মেশিন, মিশা-জায়েদ পরিষদের অবদান। তিনটা ফ্রিজ সমিতিতে, ২১টা লাইট জ্বলে। সব আমরা করেছি।  

সমিতির দুইবারের এই সাধারণ সম্পাদক আরও বলেন, করোনার সময় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে শিল্পীদের বাসায় নানা খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিয়েছি। সেই আমাকে হত্যাকারী বানানোরও চেষ্টা করা হয়েছে।  


আরও পড়ুন: 
করোনায় ভয়াবহ কিছু হবে না: অর্থমন্ত্রী

বিটকয়েন ব্যবসায়ী চক্রের মূল হোতাসহ দুইজন গ্রেপ্তার


তিনি বলেন, অনেকগুলো ভালো কাজের ভিড়ে কিছু ‍ভুল থাকতেই পারে সেগুলো ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন আপনারা।

জায়েদ খান বলেন, আমাদের এই কমিটি না এলে শিল্পী সমিতি  আবার অকৃজ হয়ে পড়বে। আমরা যেভাবে সাজিয়েছি সমিতিকে সে সমিতি আবার জৌলুস হারাবে। আমরা তো শিল্পীদের পাশে সবসময় থেকেছি। এই করোনার মহামারির মধ্যে যে সম্মানীতি শিল্পী মারা গেছেন তাদের লাশ মৃত্যুকে ভয় না করে আমি আর মিশা ভাই দাফনের ব্যবস্থা করেছি। প্রধানমন্ত্রী থেকে শিল্পীদের কল্যাণে ফান্ড এনেছি। তাই আমাগীতেও আমাদের শিল্পীদের পাশে থাকার সুযোগ দিন।  

এবারের নির্বাচনে ইলিয়াস কাঞ্চন ও নিপুণ প্যানেলের বিপক্ষে লড়বে  মিশা সওদাগর ও জায়েদ খান প্যানেল।  গত ৩০ অক্টোবর চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির মেয়াদ শেষ হয়েছে।  

news24bd.tv/ নাজিম

;