শিবচরে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ, যুবক গ্রেপ্তার
শিবচরে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ, যুবক গ্রেপ্তার

শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ অভিযোগ

শিবচরে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ, যুবক গ্রেপ্তার

মাদারীপুর প্রতিনিধি:

মাদারীপুরের শিবচরে ১৪ বছর বয়সী নবম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগে নাহিদ শেখ (২৮) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করে রোববার দুপুরে জেলহাজতে প্রেরণ করেছে পুলিশ। আর এ ঘটনায় পলাতক রয়েছে অপর এক আসামি।

গ্রেপ্তারকৃত নাহিদ শেখ বন্দরখোলা ইউনিয়নের রাজারচর মোল্লা কান্দি গ্রামের কায়ুম শেখের ছেলে ও পলাতক আরিফ হাওলাদার (২৮) একই গ্রামের তারা মিয়া হাওলাদারের ছেলে। রোববার সকালে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ওই শিক্ষার্থীকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, শনিবার সকালে নিজ বাড়ি থেকে পাশের বাজারে কেনাকাটার করার জন্য যাচ্ছিল নবম শ্রেণির ওই শিক্ষার্থী। পথিমধ্যে একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে থেকে নাহিদ ও আরিফ তাকে জোর করে মোটরসাইকেলে তুলে পাশের একটি নির্জন কলাবাগানে নিয়ে যায়।  

এ সময় আরিফ ঘটনাস্থল থেকে দূরে দাঁড়িয়ে পাহারা দেয় এবং নাহিদ ওই স্কুলছাত্রীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। শিক্ষার্থীর ডাক চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে গেলে নাহিদ ও আরিফ পালিয়ে যায়। এই ঘটনায় নির্যাতিতার বড়ভাই বাদী হয়ে অভিযুক্ত দুইজনের নামে শিবচর থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। পুলিশ অভিযান চালিয়ে শনিবার রাতেই প্রধান অভিযুক্ত নাহিদ শেখকে গ্রেপ্তার করে।

এদিকে নির্যাতিতা ওই শিক্ষার্থীকে পুলিশী হেফাজতে থানায় রাখা হয়। রোববার জেলা সদর হাসপাতালে তার মেডিকেল পরীক্ষা শেষে আদালতে জবানবন্দির জন্য পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

শিবচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মিরাজ হোসেন বলেন, ‘মেয়েটিকে অপহরণ করে ধর্ষণ করা হয়েছে মর্মে তার বড়ভাই বাদী হয়ে দুইজনের নামে মামলা করেছে। প্রধান অভিযুক্তকে এরইমধ্যে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকি আসামিকে ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। ’ 

news24bd.tv/ কামরুল 

;