বগুড়ায় একদিনে করোনা শনাক্তের রেকর্ড
বগুড়ায় একদিনে করোনা শনাক্তের রেকর্ড

বগুড়ায় একদিনে করোনা শনাক্তের রেকর্ড

আব্দুস সালাম বাবু, বগুড়া

বগুড়ায় একদিনে ১৬৮ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। যা যা এখন পর্যন্ত একদিনে জেলায় সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড।  

গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৪৫ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৬৮ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। পরীক্ষার হিসেবে শনাক্তের হার ৪৮ দশমিক ৬৯ শতাংশ।

 

জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের তথ্যানুযায়ী, বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজের (শজিমেক) ও টিএমএসএস কলেজের পিসিআর ল্যাবে পরীক্ষা করে ১১৭জনের করোনা শনাক্ত হয়েছেন। এছাড়া এন্টিজেন পরীক্ষায় শনাক্ত হয়েছেন ৩৭জন এবং বাকি ১৪জন জিন এক্সপার্ট মেশিনের পরীক্ষায় শনাক্ত হয়েছেন।  

নতুন ১৬৮ জনের মধ্যে বগুড়া সদরের ১৩০ জন, শাজাহানপুরে ১১ জন, শেরপুরে ৯ জন, আদমদীঘি ৮ জন, গাবতলীতে ৪ জন, শিবগঞ্জে ৩ জন এবং বাকি তিনজন কাহালু, ধুনট ও দুপচাঁচিয়ার বাসিন্দা।  

জেলায় এ পর্যন্ত ১ লাখ ৩২ হাজার ৮৬৩টি নমুনা পরীক্ষা করে শনাক্ত হয়েছে ২২ হাজার ৮০৩ জন । এর মধ্যে নতুন করে ১০ জনসহ সুস্থ হয়েছেন ২১ হাজার ২৮৪ জন। নতুন করে মৃত্যুর সংখ্যা না বাড়ায় মোট মৃত্যু ৬৮৮ জনেই অপরিবর্তিত রয়েছে।  

বর্তমানে করোনায় আক্রান্ত হয়ে জেলার করোনা বিশেষায়িত ৩টি হাসপাতালে ভর্তি থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন ৬৯জন। এর মধ্যে শজিমেক হাসপাতালে ৩৩জন, মোহাম্মাদ আলী হাসপাতালে ২৬জন এবং টিএমএসএস হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি রয়েছেন ১০জন।

ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মোস্তাফিজুর রহমান তুহীন জানান,  গত ২৪ ঘণ্টার ফলাফলে রেকর্ড সংখ্যক করোনায় শনাক্ত হয়েছেন। শহরের পাশাপাশি করোনার সংক্রমণ সকল উপজেলাতেও ছড়িয়ে পড়েছে।  

তিনি বলেন, জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ করোনা সংক্রমণ রোধে কাজ করছে। বিশেষায়িত ৩টি হাসপাতালসহ উপজেলা পর্যায়ে হাসপাতালগুলোতে শয্যা, অক্সিজেনসহ চিকিৎসা সামগ্রী প্রস্তুত রয়েছে বলে জানান এই স্বাস্থ্য কর্মকর্তা।


আরও পড়ুন:

বিধিনিষেধ বাড়বে কিনা, যা বললেন প্রতিমন্ত্রী 
‘সুশীল সমাজের যারা কথা বলছেন তাদের উদ্দেশ্য সৎ নয়’

‌‘পুলিশ সদস্য অপকর্মে লিপ্ত’ শুনতে চাই না: আইজিপি


বগুড়া জেলা প্রশাসক মো. জিয়াউল হক জানান, স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলাসহ সবার জন্য মাস্ক পরিধান নিশ্চিত করতে নির্বাহি ম্যাজিস্ট্রেটগণ মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করছে। সংক্রমণ রোধে জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে প্রচারণা অব্যহত রয়েছে, প্রশাসন জোর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে, সংক্রমণের হার কমে আসবে বলে মনে করেন তিনি।

news24bd.tv/ নাজিম