মাদারীপুরে নারীকে অপহরণের পর হত্যা, পাঁচজনের মৃত্যুদণ্ড
মাদারীপুরে নারীকে অপহরণের পর হত্যা, পাঁচজনের মৃত্যুদণ্ড

প্রতীকী ছবি

মাদারীপুরে নারীকে অপহরণের পর হত্যা, পাঁচজনের মৃত্যুদণ্ড

মাদারীপুর প্রতিনিধি:

মাদারীপুরের রাজৈরে রাধা রানী বৈদ্য নামে এক নারীকে অপহরণের পর হত্যা মামলায় ৫জনের মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত। মাদারীপুর অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক লাইলাতুল ফেরদাউস সোমবার বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে এই আদেশ প্রদান করেন।  

এ সময় সাজাপ্রাপ্ত ৪ আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। সাজা প্রাপ্ত এক আসামি মামলার পর পরই দেশত্যাগ করেন।

মামলার বিবরণ ও আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০০২ সালের ১৪ অক্টোবর মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার আমগ্রাম এলাকার গুরুপদ বৈদ্যর স্ত্রী রাধা রানী বৈদ্যকে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে অপহরণ করে।  

এরপরের দিন রাধা রানীর ছেলে বিষ্ণপদ বৈদ্য ৬জনকে আসামি করে রাজৈর থানায় একটি অপহরণ মামলা করে। মামলার ১১ দিন পরে পাখুল্লা বিল থেকে রাধা রানী বৈদ্যর মস্তকবিহীন মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।  

আরও পড়ুন: মামার ধর্ষণে ভাগ্নি ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা!

পরে ২০০৩ সালের ৩০ এপ্রিল মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মোখলেসুর রহমান হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে ৬ জনের নামে আদালতে চার্জশীট দাখিল করে। মামলার আসামি হলেন, অশোক বৈদ্য, নরেন বৈরাগী, কালু বিশ্বাস, তরুনী বেদ্য, বিজয় বেপারী, গৌরাঙ্গ বৈদ্য।  

এদের মধ্যে গৌরাঙ্গ বৈদ্য মামলা চলাকালে মৃত্যুবরণ করেন এবং আসামি বিজয় বেপারী পলাতক রয়েছে। দীর্ঘ ২০ বছর পরে মামলার স্বাক্ষী প্রমাণ শেষে আদালত ৫জনের মৃত্যুদণ্ডের আদেশ প্রদান করে।  

মাদারীপুর রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবি সিদ্দিকুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি মামলার রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। মামলার বাদী পক্ষ রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে দ্রুত রায় কার্যকর করার দাবি জানিয়েছেন।

news24bd.tv/ কামরুল 

;