নারায়ণগঞ্জ আদালতে নেয়া হয়েছে মাওলানা মামুনুল হককে
নারায়ণগঞ্জ আদালতে নেয়া হয়েছে মাওলানা মামুনুল হককে

ফাইল ছবি

নারায়ণগঞ্জ আদালতে নেয়া হয়েছে মাওলানা মামুনুল হককে

অনলাইন ডেস্ক

হেফাজতে ইসলামের বিলুপ্ত কমিটির যুগ্ম-মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হককে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ থানায় দায়ের করা ধর্ষণ মামলায় তৃতীয় দফায় সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য নারায়ণগঞ্জ আদালতে আনা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) সকাল ৯টায় কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে কাশিমপুর কারাগার থেকে তাকে নারায়ণগঞ্জের আদালপাড়ায় নিয়ে আসা হয়।

নারায়ণগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতের বিচারক নাজমুল হক শ্যামলের আদালতে আজ দুপুর ১২টার দিকে সাক্ষগ্রহণ শুরু হবে।

মামুনুল হকের সাক্ষ্যগ্রহণকে কেন্দ্র করে অপ্রিতিকর ঘটনা এড়াতে আদালতপাড়ায় নেওয়া হয়েছে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

আদালতের প্রবেশ ফটকে সবাইকে জিজ্ঞাসাবাদ ও চেক করে প্রবেশ করানো হচ্ছে।

এর আগে গত ১৩ ডিসেম্বর দ্বিতীয় দফায় মামুনুলের বিরুদ্ধে রয়েল রিসোর্টের সুপারভাইজার আব্দুল আজিজ, রিসিপশন অফিসার নাজমুল ইসলাম অনিক ও আনসার গার্ড রতন বড়াল সাক্ষ্য দিয়েছিলেন।

তার আগে গত ২৪ নভেম্বর প্রথম দফায় মামুনুল হকের উপস্থিতিতে কথিত দ্বিতীয় স্ত্রী জান্নাত আরা ঝর্ণার সাক্ষ্য নেন আদালত। একইসঙ্গে ৩ নভেম্বর মামুনুল হকের বিরুদ্ধে করা ধর্ষণ মামলায় বিচারকাজ শুরুর আদেশ দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে রয়েল রিসোর্টে ২০২১ সালের ৩ এপ্রিল এক নারীর সঙ্গে অবস্থান করছিলেন মামুনুল হক। ওই সময় স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা এসে মামুনুল হককে ঘেরাও করে। পরে স্থানীয় হেফাজতের নেতাকর্মী ও সমর্থকরা তাকে ছিনিয়ে নিয়ে যান। পরে ৩০ এপ্রিল সোনারগাঁ থানায় মামুনুল হকের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ মামলা করেন ওই নারী। তবে ওই নারীকে তার দ্বিতীয় স্ত্রী দাবি করে আসছেন মামুনুল হক।

আরও পড়ুন


বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে আগুন: ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন

news24bd.tv এসএম

;