কালীগঞ্জে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ
কালীগঞ্জে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ

প্রতীকী ছবি

কালীগঞ্জে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ

অনলাইন ডেস্ক

সপ্তম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে তুলে নিয়ে গিয়ে পরিত্যক্ত বাড়িতে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে লালমনিরহাটের কালীগঞ্জে।

ওই স্কুলছাত্রীকে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার রাতে ওই ছাত্রীর মা (মাজেদা বেগম) বাদী হয়ে কালীগঞ্জ থানায় দুজনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলার পরেই ঘটনায় অভিযুক্ত উপজেলার হররাম এলাকার আঞ্জু মিয়ার ছেলে রিপন মিয়া (২৮) এবং আহম্মদ আলীর ছেলে মনির উদ্দিনকে (১৮) মঙ্গলবার ভোরে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার চন্দ্রপুর ইউনিয়নের হররাম গ্রামের স্কুল পড়ুয়া সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে গত (২৩ জানুয়ারি) শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে বাড়িতে একা পেয়ে রিপন মিয়া ও মনির উদ্দিন এলাকার পরিত্যক্ত একটি বাসায় জোরপূর্বক নিয়ে গিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে।

বাড়ির লোকজন অনেক খোঁজাখুঁজি করেও ওই রাতে তার কোনো খোঁজ পায়নি। রাতভর ধর্ষণের পর অসুস্থ অবস্থায় (২৪ জানুয়ারি) সোমবার সকাল ৬টার দিকে পাশের একটি সতী নদীর ধাপে ওই ছাত্রীকে ফেলে রেখে পালিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় জয়নাল মিয়া ও আছর আলী ও এরশাদ তাদের দেখে ফেলে। পরে অসুস্থ অবস্থায় ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে কালীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে ভর্তি করা হয়।

সেখানে তার অবস্থা অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য ওই দিন লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করেন।

বর্তমানে ওই ছাত্রী সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বলে জানিয়েছেন কালীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম রসুল।

তিনি বলেছেন, অভিযুক্ত দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

news24bd.tv/ তৌহিদ

;