গণধর্ষণের পর তরুণীর চুল কেটে ঘোরানো হলো রাস্তায়
গণধর্ষণের পর তরুণীর চুল কেটে ঘোরানো হলো রাস্তায়

গণধর্ষণের পর তরুণীর চুল কেটে ঘোরানো হলো রাস্তায়

অনলাইন ডেস্ক

ঘটনাটি ভারতের রাজধানী দিল্লির। সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার এক তরুণীকে অপহরণ করে, তার চুল কেটে, মুখে কালি মাখিয়ে প্রকাশ্যে রাস্তায় হাঁটানোর অভিযোগ উঠেছে একদল নারীর বিরুদ্ধে। এমন প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে আনন্দবাজার পত্রিকা।

প্রতিবেদনে প্রকাশ, ঘটনাটির একটি ভিডিও ইতোমধ্যে ভাইরাল হয়েছে।

এমন ঘটনায় শিউরে উঠছেন অনেকেই। ঘটনাটি দিল্লির কস্তুরবা নগরের। তরুণী (২০) গণধর্ষণের শিকার হন কয়েকজন মাদক কারবারির হাতে। সেই তরুণীকে এবার এক তরুণের মৃত্যুর জন্য দায়ী করে তার ওপর হামলা চালালেন নারীরা। তার মাথা মুড়িয়ে, গলায় জুতার মারা পরিয়ে, মুখে কালি লেপে রাস্তায় ঘোরানোর অভিযোগ উঠল ওই নারীদের বিরুদ্ধে।

দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরীবাল এ ঘটনাকে অত্যন্ত নিন্দনীয় বলে উল্লেখ করেন।

তিনি টুইট করেন, ‘অত্যন্ত লজ্জাজনক ঘটনা। অপরাধীরা এত সাহস পেল কোথা থেকে? কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবং লেফটেন্যাটন্ট গভর্নর অনিল বাইজলকে আর্জি জানাচ্ছি, পুলিশকে এ বিষয়ে কঠোর পদক্ষেপের নির্দেশ দিচ্ছি। দিল্লিবাসী এ ধরনের ঘৃণ্য কাজ এবং অপরাধকে কখনোই বরদাস্ত করবে না। ’

খবরে প্রকাশ, গত ১২ নভেম্বর ওই তরুণ আত্মহত্যা করেন। তার মৃত্যুর জন্য এই তরুণীকে দায়ী করেন মৃতের পরিবার। ঘটনার পর তরুণীকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যান মৃত তরুণের চাচা। পরে তাকে গণধর্ষণ করা হয়।

দিল্লি পুলিশের এক কর্মকর্তা বলেন, এটা দুর্ভাগ্যজনক ঘটনা। ব্যক্তিগত শত্রুতার জেরে এক নারীর ওপর এভাবে হামলা চালানো হয়েছে। তাকে যৌন হেনস্থা করা হয়েছে। এই ঘটনায় চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এই ঘটনায় সরব হয়েছেন দিল্লি মহিলা কমিশনের চেয়ারপারসন স্বাতী মালিওয়াল।

news24bd.tv/ তৌহিদ