থাইল্যান্ডের হাসপাতালে কেমন আছেন রওশন এরশাদ?
থাইল্যান্ডের হাসপাতালে কেমন আছেন রওশন এরশাদ?

ফাইল ছবি

থাইল্যান্ডের হাসপাতালে কেমন আছেন রওশন এরশাদ?

নিজস্ব প্রতিবেদক

তিন মাস ধরে থাইল্যান্ডের ব্যাংককের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন জাতীয় সংসদের বিরোধী দলের নেতা সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের বেগম রওশন এরশাদ (৭৮)।  

এদিকে জাতীয় পার্টির রওশন অনুসারী নেতা-কর্মীরা বলছেন, পার্টির পক্ষ থেকে সঠিকভাবে তার খোঁজ-খবর নেওয়া হচ্ছে না। আর জাতীয় পার্টির পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, বেগম রওশন এরশাদের ছেলে সাদ এরশাদ তাদের সঙ্গে কোনো যোগাযোগই করেন না। ফোন করলেও রিসিভ করেন না।

এইচ এম এরশাদ ট্রাস্টের চেয়ারম্যান কাজী মামুনর রশীদ বলেন, ব্যাংককে অবস্থানরত সাদ এরশাদের সঙ্গে তিনি প্রায়ই যোগাযোগ করেন। সাদের বরাতে কাজী মামুন বলেন, রওশন এরশাদ আগের চেয়ে কিছুটা ভালো আছেন।

তিনি বলেন, জাতীয় পার্টির পক্ষ থেকে যদি বেগম রওশন এরশাদের খোঁজখবর না নিয়ে থাকে তাহলে তা দুঃখজনক। কাজী মামুন বেগম রওশন এরশাদের জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া কামনা করেন।  

জানা গেছে, রওশন এরশাদের শারীরিক অবস্থা ভালো নয়। দিন দিন তার শরীরে বিভিন্ন রোগের উপসর্গ দেখা দিচ্ছে। এ জন্য অধিকাংশ সময় তাকে আইসিইউতে থাকতে হচ্ছে। মাঝে মধ্যে আইসিইউ থেকে কেবিনে হস্তান্তর করা হলেও এক-দুই দিনের বিরতিতে শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটছে। তখন আবার তাকে আইসিইউতে নিতে হচ্ছে।  

জাতীয় পার্টির রওশন অনুসারী নেতা-কর্মী বলছেন, বেগম খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে দলটি নিয়মিত ব্রিফিং করলেও রওশন এরশাদের শারীরিক অবস্থা নিয়ে শীর্ষ নেতারা অনেকটাই উদাসীন।  

জাতীয় পার্টির মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু জানান, রওশন এরশাদের শারীরিক অবস্থার খোঁজ-খবর নেওয়ার চেষ্টা আমরা সবসময়ই করছি। বড় সমস্যা ব্যাংককে অবস্থানরত সাদ এরশাদ আমাদের কিছুই জানান না। আবার ফোন দিলেও রিসিভ করেন না। বিষয়টা নিয়ে সমস্যায় আছি।

উল্লেখ্য, রওশন এরশাদ ফুসফুসের জটিলতা, ব্লাড প্রেসার, বার্ধক্যজনিতসহ নানা রোগে আক্রান্ত। তিনি ময়মনসিংহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য। তিনি সংসদে গত দুই মেয়াদে বিরোধী দলের নেতার দায়িত্ব পালন করে আসছেন।
news24bd.tv/আলী