বড়ভাইকে পিটিয়ে হত্যা মামলায় ছোটভাইয়ের কারাদণ্ড
বড়ভাইকে পিটিয়ে হত্যা মামলায় ছোটভাইয়ের কারাদণ্ড

ছোটভাই নিজামুদ্দিন

বড়ভাইকে পিটিয়ে হত্যা মামলায় ছোটভাইয়ের কারাদণ্ড

অনলাইন ডেস্ক

ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলার রাজাপুর ইউনিয়নের সাপুয়া এলাকায় বড়ভাই জহিরুল হক জহিরকে পিটিয়ে এবং শরীরে গরম তেল ফেলে হত্যা মামলায় ছোট ভাইকে সাজা দিয়েছেন আদালত। মামলায় ছোটভাই নিজামুদ্দিনকে ১০ বছরের কারাদণ্ড এবং ৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে (১ ফেব্রুয়ারি) জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক ড. বেগম জেবুন্নেছা এই রায় ঘোষণা করেন।

আদালত সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, গত ২৯ জানুয়ারি মামলার একমাত্র আসামি নিজাম উদ্দিনের উপস্থিতিতে যুক্তিতর্ক অনুষ্ঠিত হয়।

রাষ্ট্রপক্ষে পিপি হাফেজ আহম্মদ ও আসামি পক্ষে শরফুদ্দিন মাহমুদ মানিক তাদের স্বপক্ষে যুক্তি তুলে ধরেন।

২০১৯ সালের ২৬ মার্চ সকাল ৭টার দিকে দাগনভূঞা উপজেলার রাজাপুর ইউনিয়নের সাপুয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে ফারুকের চায়ের দোকান যান বড়ভাই জহির। আগে থেকে ওঁৎপেতে থাকা কয়েকজন তাকে পিটিয়ে আহত করে। একপর্যায়ে কড়াইয়ের গরম তেল বড়ভাইয়ের শরীরে ছোটভাই নিজামুদ্দিন ফেলে দেয়।

স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে স্থানান্তর করা হয় জহিরকে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৩ এপ্রিল সন্ধ্যায় মারা যান তিনি। এ ঘটনায় তার ভগ্নিপতি ফজলুল করিম বাদি হয়ে ৪ এপ্রিল রাজধানীর শাহবাগ থানায় সাধারণ ডায়েরী করেন। পরবর্তীতে নিহতের স্ত্রী ফাতেমা আক্তার রিমা বাদি হয়ে মৃত নুরুল হক মিয়ার ছেলে নিজাম উদ্দিনকে আসামি করে দাগনভূঞা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষ থেকে ১৩ জন সাক্ষীকে আদালতে উপস্থাপন করা হয়। গত বছরের ১১ অক্টোবর আসামি নিজাম উদ্দিনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচারকাজ শুরু হয়। মামলা দায়েরের পর আসামী নিজাম উদ্দিন গ্রেপ্তার করা হয়। ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন।

আরও পড়ুন


মূলধারার রাজনীতি কি কানাডায় বাড়ি কেনা: রিজভী

news24bd.tv এসএম