বিয়ের ব্যাপারে কথা বলতে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ!
বিয়ের ব্যাপারে কথা বলতে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ!

প্রতীকী ছবি

বিয়ের ব্যাপারে কথা বলতে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ!

অনলাইন ডেস্ক

বিয়ের আশ্বাস দিয়ে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলার পর এক স্কুলছাত্রীকে (১৪) ডেকে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনায় অভিযুক্ত মেহেদী হাসান (২২) নামে এক যুবককে আটক করেছে র‌্যাব।

গতকাল সোমবার রাতে র‌্যাব-৫ এর নাটোর ইউনিট গোপন তথ্যের ভিত্তিতে বড়াইগ্রাম উপজেলার আহমেদপুর বাজারস্থ সোনালী ব্যাংকের সামনে থেকে তাকে আটক করে।

গত ৩০ জানুয়ারি রাত আনুমানিক সাড়ে ১২টায় উপজেলার চাপিলা ইউনিয়নের বৃ-চাপিলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত মেহেদী উপজেলার বৃ-চাপিলা পাঠানপাড়া গ্রামের আব্দুর রহিম শেখের ছেলে।

আরও পড়ুন:

প্যারাগুয়ের একটি কনসার্টে গোলাগুলির ঘটনায় অন্তত দুই জন নিহত

জানুয়ারিতে বেলজিয়ামে ৩৯ বছরে সর্বোচ্চ মূল্যস্ফীতি

জানা গেছে, বিয়ের আশ্বাসে মেহেদী হাসান সাথে ওই ছাত্রীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। পরে গত শনিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে বিয়ের ব্যাপারে কথা বলবে বলে ওই ছাত্রীর বাড়ির পেছনে বাঁশবাগানে ডেকে নেয়। সেখানে তাকে ধর্ষণ করলে পরিবারের লোকজন বুঝতে পারে। এ সময় মেহেদী হাসান ওই ছাত্রীকে রেখে পালিয়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে রাতেই রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ ঘটনায় পরদিন রোববার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ভুক্তভোগীর মা বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন।

গুরুদাসপুর থানার ওসি আবদুল মতিন জানান, র‌্যাব মেহেদী হাসানকে থানায় হস্তান্তর করেছে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রী মা বাদী হয়ে মামলা করেছেন।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত