মাদরাসা শিক্ষিকাকে ধর্ষণের দায়ে সুপারের যাবজ্জীবন
মাদরাসা শিক্ষিকাকে ধর্ষণের দায়ে সুপারের যাবজ্জীবন

সংগৃহীত ছবি

মাদরাসা শিক্ষিকাকে ধর্ষণের দায়ে সুপারের যাবজ্জীবন

অনলাইন ডেস্ক

নিজ কার্যালয়ে একই মাদরাসার সহকারী শিক্ষিকাকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণ  করেন ঢেমশা উম্মুল ক্বোরা দাখিল মাদরাসার সুপার মাওলানা নিজাম উদ্দিন। সেই ধর্ষণের মালায় আদালত মাওলানা নিজাম উদ্দিনকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন। একইসঙ্গে তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।  

মঙ্গলবার (১ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে চট্টগ্রামের চতুর্থ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৪ এর বিচারক মোহাম্মদ জামিউল হায়দার এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্তের নাম মাওলানা নিজাম উদ্দিন। তিনি সাতকানিয়া উপজেলার উত্তর ঢেমশা উম্মুল ক্বোরা দাখিল মাদরাসার সাবেক সুপার। মামলা দায়েরর পর থেকেই তিনি পলাতক রয়েছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ট্রাইব্যুনালের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট নিখিল কুমার নাথ।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৬ সালের ৩ জানুয়ারি নিজ কার্যালয়ে একই মাদরাসার সহকারী শিক্ষিকাকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণ করেন নিজাম উদ্দিন। পরে বিয়ে করার কথা বললে অস্বীকৃতি জানান নিজাম। এ ঘটনায় ওই বছরের ২৬ সেপ্টেম্বর নিজামের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করেন ওই শিক্ষিকা। আদালত পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) তদন্তের দায়িত্ব দেন।  

পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট নিখিল কুমার নাথ বলেন, নিজামের ডিএনএ পরীক্ষায় ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে। মোট ছয়জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আজ এ মামলার রায় ঘোষণা করেন আদালত।  

news24bd.tv/আলী