চিলমারীতে প্রিজাইডিং অফিসারকে তুলে নিয়ে মারধর পরাজিত প্রার্থীর
চিলমারীতে প্রিজাইডিং অফিসারকে তুলে নিয়ে মারধর পরাজিত প্রার্থীর

প্রিজাইডিং অফিসারকে পরাজিত মেম্বার প্রার্থীর মারধর

নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা

চিলমারীতে প্রিজাইডিং অফিসারকে তুলে নিয়ে মারধর পরাজিত প্রার্থীর

হুমায়ুন কবির সূর্য, কুড়িগ্রাম

কুড়িগ্রামের চিলমারীতে ভোটে পরাজিত হয়ে প্রিজাইডিং অফিসার মো. সাখোয়াত হোসেনকে রক্তাক্ত জখম করেছে পরাজিত এক মেম্বার প্রার্থী ও তার সমর্থকরা।

মঙ্গলবার (১ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে আহত প্রিজাইডিং অফিসারকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করা হয়েছে। এর আগে সোমবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে উপজেলার অস্টমীরচর ইউনিয়নের দীঘলকান্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৬ষ্ঠ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ফলাফল ঘোষনার পর ঘটনাটি ঘটে।

অভিযোগ উঠেছে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর কাছে ৪ ভোটে পরাজিত ফুটবল প্রতীকের প্রার্থী মো. দুলাল হোসেন ক্ষুব্ধ হয়ে তার কর্মী-সমর্থকসহ প্রিজাইডিং অফিসারের উপর চড়াও হয়।

এরপর তাকে টেনে হিঁচড়ে নিজের বাড়িতে নিয়ে অবরুদ্ধ করে রাখে। এসময় কেন্দ্রে দায়িত্বরত পুলিশ বাহিনী ও আনসারের সদস্যরা প্রিজাইডিং অফিসারকে ফেলে সটকে পরে। পরে রাতে চিলমারী থানার সাব ইন্সপেক্টর মো. রবীন প্রিজাইডিং অফিসার মো. সাখোয়াত হোসেনকে পরাজিত মেম্বার প্রার্থীর বাড়ি থেকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে চিলমারী হাসপাতালে ভর্তি করে।

চিলমারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. জুবাইর হোসেন জানান, রাত পৌনে ১০টার দিকে রোগীকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে নেয়া হয়। এসময় তার মাথা ফেঁটে যাওয়ায় ৪ জায়গায় ১৫-১৬টি সেলাই দেয়া হয়। পরে রোগীর স্বজনদের অনুরোধে মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

প্রিজাইডিং অফিসার মো. সাখোয়াত হোসেন জানান, ইলেক্ট্রিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ শুরু হয়ে বিকেল ৪টায় ভোট গ্রহণ শেষ হয়। পরে ফলাফল ঘোষণায় ৪ ভোটে পরাজিত হয়ে ফুটবল প্রতীকের প্রার্থী মো. দুলাল তার কর্মী সমর্থকদের নিয়ে আমার উপর ঝাঁপিয়ে পরে। তারা লাঠিসোটা দিয়ে আমার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাত করে। পরে আহত অবস্থায় টেনে হিঁচড়ে তার বাড়ীতে নিয়ে যায়। সেখানে ফলাফল পাল্টানোর জন্য আমার উপর আবারো অকথ্য নির্যাতন চালায়।

তিনি আরও বলেন, এই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে দায়িত্বরত এসআই আকবরের নেতৃত্বে পুলিশ ও আনসারের সদস্যদের নির্দেশ দেয়া হলেও তারা কোন ব্যবস্থা না নিয়ে নিজেদের গা বাঁচাতে সটকে পরে। আমি তাদের বিরুদ্ধে দায়িত্বে অবহেলার দায়ে বিভাগীয় শাস্তিসহ জড়িতদের আইনের আওতায় আনার অনুরোধ করছি।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত ফুটবল প্রতীকের প্রার্থী মো. দুলালেকে ফোন করলে তার ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

এ ব্যাপারে চিলমারী উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. ইকবাল হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, এ ঘটনায় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কুড়িগ্রামের ঢুষমারা থানার অফিসার ইনচার্জ সরকার ইফতেখারুল মোকাদ্দেম জানান, এখনো মামলা হয়নি। মামলা হলে দ্রুত আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আরও পড়ুন


গভীর রাতে স্কুলছাত্রীকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ, হাসপাতালে ভর্তি

news24bd.tv এসএম