দফায় দফায় চালের দাম বাড়ায় ক্ষুব্ধ সাধারণ মানুষ
দফায় দফায় চালের দাম বাড়ায় ক্ষুব্ধ সাধারণ মানুষ

সংগৃহীত ছবি

দফায় দফায় চালের দাম বাড়ায় ক্ষুব্ধ সাধারণ মানুষ

ডেস্ক রিপোর্ট

চালের বাড়তি দাম নিয়ে চরম ক্ষুব্ধ সাধারণ মানুষ। তারা বলছেন, ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট আর মজুতদারদের কারসাজিতেই দফায় দফায় বেড়েছে চালের দাম। যৌক্তিক পর্যায়ে নামিয়ে আনতে ব্যবস্থা নেয়ার দাবিও জানিয়েছেন তারা। তবে সিন্ডিকেটের কথা অস্বীকার করছে ব্যবসায়ীরা।

 

দেশের বৃহত্তম ধান-চাল উৎপাদনের জেলা নওগাঁ। সারাদেশের চালের চাহিদার সিংহভাগ মেটানো হয় এ জেলা থেকে। বেশ কিছুদিন ধরেই চালের বাড়তি দাম কিছুতেই কমছে না। সাধারণ মানুষ বলছে, চাল কিনতেই সব টাকা শেষ। জীবন চালানোই দায়।

চাল ব্যবসায়ীরা বলছে, মোটা চালের দাম কিছুটা কমলেও সরু বা চিকন চালের বাজার অপরিবর্তিত।

দেশের সিংহভাগ চাল উৎপাদনের জেলা দিনাজপুর। গেল এক মাস আগে বেড়ে যাওয়া চালের দাম এখনো কমছেনা।  বর্তমানে বিআর ২৮ চাল প্রতি কেজি ৫২ থেকে ৫৪ টাকা, মিনিকেট ৫৮ থেকে ৬০ টাকা এবং নাজির শাইল ৬৬ থেকে ৬৮ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

ব্যবসায়ীরা বলছে, ধানের দাম উর্ধ্বমূখী থাকায় বেড়েছে চালের দাম।

আরও পড়ুন:

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ইউরোপে সবচেয়ে বড় আক্রমণের আশংকা

আবাসন ব্যবসায় সংকটের মুখে চীনের অর্থনীতি

এদিকে সরু চালের  দাম বেড়ে যেটা আছে, গত ৩ সপ্তাহ ধরে তা আর নামছে না। সরু চালের বৃহত্তম মোকাম কুষ্টিয়ার খাজানগরে ধারাবাহিকভাবে বেড়েছে চালের দাম। মিলগেটে ভাল মানের সরুচাল মিনিকেট এখন বিক্রি হচ্ছে ৫৯-৬০ টাকা কেজি দরে। দাম বৃদ্ধির জন্য ক্রেতারা মিল-মালিক ও মজুতদার সিন্ডিকেটকে দায়ী করলেও মিল মালিকরা বলছে এমন কোন সিন্ডিকেটের অস্তিত্ব নেই।

নিম্ন ও নিম্ন মধ্যবিত্তদের বেঁচে থাকার তাগিদে চালের দাম যৌক্তিক পর্যায়ে নামিয়ে আনতে সরকার দ্রুত ব্যবস্থা নিবে, এমনইটাই আশা সাধারণ ভোক্তাদের।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত