বিরোধের জেরে পিটিয়ে হত্যাচেষ্টা,গাড়ি ভাঙচুর
বিরোধের জেরে পিটিয়ে হত্যাচেষ্টা,গাড়ি ভাঙচুর

সংগৃহীত ছবি

বিরোধের জেরে পিটিয়ে হত্যাচেষ্টা,গাড়ি ভাঙচুর

নোয়াখালী প্রতিনিধি

নোয়াখালীর সেনবাগে পূর্ব বিরোধ নিয়ে সামছুউদ্দিন সমীর (৩০) নামে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে মনিরুল ইসলাম (৩৮) নামে আরেক যুবকের বিরুদ্ধে। এ সময় সন্ত্রাসীরা সমীরের বন্ধু নজরুলের ব্যবহৃত একটি প্রাইভেটকার ভাঙচুর করে।  

হামলার ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার রাত ১০ টার দিকে উপজেলার শান্তিহাট বাজারে।

এ ঘটনায় হামলার শিকার সমীর বাদী হয়ে ১৫ জনকে আসামি করে সেনবাগ থানা একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সোমবার ৩১ জানুয়ারি সেনবাগের ৯নং নবীপুর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি )নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সমীর ওই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী (চশমা) প্রতিকের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী বেলায়েত হোসেন সোহেলে পক্ষে কাজ করে। সোহেল চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ায় সমীরসহ তার ৩ বন্ধু মিলে তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়ে প্রাইভেটকারযোগে বাড়িতে ফেরার পথে ঘটনাটি ঘটে। নির্বাচনে হেরে যাওয়াা নৌকা মার্কার চেয়ারম্যান প্রার্থী খাজা খায়ের সুজনের সমর্থক মনিরুল ইসলামের (৩৮) নেতৃত্বে ১০-১৫ জন তাদের উপর লাঠি ও রডসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়।

দুবৃত্তরা একটি প্রাইভেটকার (ঢাকা মেট্রা-গ-৪৫- ৮৮৬৫) ভাঙচুর করে এসময় তার সঙ্গে থাকা নগদ অর্থ মোবাইল সেট ছিনিয়ে নেয়। এসময় স্থানীয়রা এগিয়ে এসে সমীরকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে  ভর্তি করে। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে  নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়।

সেনবাগ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইকবাল হোসেন পটোয়ারীর সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, হামলার ঘটনাটি নির্বাচন নিয়ে নয় পূর্ব বিরোধের জেরে। উভয়ে পরস্পরকে দায়ী করে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

news24bd.tv/আলী