শত চেষ্টার পরেও বাঁচানো গেল না গভীর কুয়ায় পড়া সেই শিশুকে!
শত চেষ্টার পরেও বাঁচানো গেল না গভীর কুয়ায় পড়া সেই শিশুকে!

বাঁচানো গেল না শিশু রায়ানকে

শত চেষ্টার পরেও বাঁচানো গেল না গভীর কুয়ায় পড়া সেই শিশুকে!

অনলাইন ডেস্ক

মরক্কোর একটি ১০৪ ফুট গভীর কুয়ার ভেতরে পড়ে যায় রায়ান নামের এক শিশু। উদ্ধারকর্মীরা প্রাণপণ চেষ্টাও চালায় তাকে বাঁচাতে। কিন্তু সব চেষ্টা বিফলে চলে গেল। ওই গভীর কুয়ায় চারদিন ধরে আটকে থাকা পাঁচ বছরের শিশু রায়ানের করুণ মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার (৫ ফেব্রুয়ারি) রাতে যখন রায়ানকে উদ্ধার করা হয়, ততক্ষণে সে মৃত। শিশু রায়ানকে উদ্ধার অভিযানের সময় হাজার হাজার মানুষ সেখানে ভিড় করেছিলেন। আধুনিক নানা সরঞ্জাম দিয়ে মাটি খুঁড়েও শেষ রক্ষা করা গেল না। রায়ানের জন্য সারা দেশের মানুষ প্রার্থনা করছিল, অনলাইনেও এই উদ্ধার কর্মকাণ্ডের দিকে নজর রেখেছিলেন লাখ লাখ মানুষ। সামাজিকমাধ্যম ব্যবহারকারীরা হ্যাশট্যাগ #SaveRyan ব্যবহার করে তার প্রতি সহমর্মিতা জানিয়েছেন।

রায়ানের পিতা গত মঙ্গলবার যখন কুয়াটি মেরামতের কাজ করছিলেন তখন সে হঠাৎ করে ৩০ মিটার (১০৪ ফুট) গভীরে পড়ে যায়। সেদিন সন্ধ্যা থেকেই দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় ছোট শহর তামরতে উদ্ধার অভিযান শুরু করা হয়। কুয়াটির ভেতর বালু ও পাথর থাকায় ধসের আশঙ্কায় অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছিল।

শনিবারই উদ্ধার কর্মীরা জানিয়েছিলেন, তারা রায়ানের কাছাকাছি পৌঁছে গিয়েছেন। যদিও সেই সময় তার অবস্থা সম্পর্কে কোন তথ্য জানানো হয়নি। তখন সেখানে ভিড় করা জনতা উল্লাস প্রকাশ করেছিলেন। তারা ধর্মীয় গান গেয়ে তার জন্য প্রার্থনা করছিলেন। অনেকে সেখানে তাঁবু গেড়েও বাস করছিলেন।

কিন্তু একটু পরেই স্থানীয় সময় শনিবার সন্ধ্যায় রায়ানের মরদেহ কুয়ার ভেতর থেকে বের করে আনা হলে সবকিছু নীরব হয়ে পড়ে। রায়ানের মৃত্যুতে গভীর সমবেদনা প্রকাশ করেন মরক্কোর রাজা ষষ্ঠ মোহাম্মদ।

আরও পড়ুন


সাভারে ১৯ বছরের তরুণীর ২ স্বামী, দুজনকে নিয়ে থাকেন এক ঘরেই!

news24bd.tv এসএম

;