কিংবদন্তি শিল্পী লতা মঙ্গেশকরের মৃত্যুতে ভারতে দুদিনের শোক
কিংবদন্তি শিল্পী লতা মঙ্গেশকরের মৃত্যুতে ভারতে দুদিনের শোক

ফাইল ছবি

কিংবদন্তি শিল্পী লতা মঙ্গেশকরের মৃত্যুতে ভারতে দুদিনের শোক

অনলাইন ডেস্ক

ভারতীয় উপমহাদেশের কিংবদন্তী সংগীতশিল্পী লতা মঙ্গেশকর চলে গেলেন না ফেরার দেশে। মুম্বাইয়ের ব্রিচ ক্যান্ডি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন এই সুর সম্রাজ্ঞী। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯২ বছর।

কিংবদন্তী এই সুর সম্রাজ্ঞীর মৃত্যুতে ভারতে দুদিনের জাতীয় শোক ঘোষণা করা হয়েছে।

তার সম্মানে এ দুদিন জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হবে।

রোববার (৬ ফেব্রুয়ারি) ভারতের সরকারি সূত্রের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা এএনআইয়ের খবরে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

লতা মঙ্গেশকরের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এ সংগীতশিল্পীর মৃত্যুর খবর জানার পর একাধিক টুইটও করেন তিনি।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ১১ জানুয়ারি মুম্বাইয়ের ব্রিচ ক্যান্ডি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছিল লতা মঙ্গেশকরকে। নিউমোনিয়াতে আক্রান্ত ছিলেন তিনি। প্রথম থেকেই তাকে আইসিইউতে রাখা হয়েছিল। ৩০ জানুয়ারি শিল্পীর কোভিড নেগেটিভ রিপোর্ট আসে। কিন্তু বার্ধক্যজনিত নানা সমস্যার কারণে শেষ পর্যন্ত মৃত্যুর কাছে হার মানলেন তিনি।

১৯৪২ সালে মাত্র ১৩ বছর বয়সে লতা প্রথম ভারতীয় চলচ্চিত্রের জন্য গান করেন। তবে প্রথম জনপ্রিয়তা পায় ১৯৪৯ সালে ‘মহল’ ছবিতে মধুবালার ঠোঁটে তার ‘আয়েগা আনেওয়ালা ‘গানটি। এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি এই কোকিল কণ্ঠিকে।

৭ দশক ধরে সমান জনপ্রিয়তা ও ভরাট সুরেলা কণ্ঠ নিয়ে তিনি ভক্ত শ্রোতাদের সুরের মুর্ছনায় আচ্ছন্ন করেছেন। লতার গাওয়া এক হাজারেরও বেশি গানে ঠোটঁ মিলিয়েছেন বলিউডের প্রায় সব নায়িকা। এছাড়া এই কিংবদন্তীর ভারতের ৩৬টি আঞ্চলিক ও বিদেশি ভাষায় গান গাওয়ার রেকর্ড রয়েছে। তিনি বাংলাতেও  গেয়েছেন বহু গান।

১৯২৯ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর ভারতের ইন্দোরে এক সংগীত পরিবারে জন্ম লতা মঙ্গেশকরের। তাঁর অন্য তিন বোন আশা ভোঁসলে, ঊষা মঙ্গেশকর ও মীনা মঙ্গেশকরও গানের সঙ্গে যুক্ত।

আশ্চর্য প্রতিভার এই গুণীশিল্পী ৩০ হাজারেরও বেশি গানে কণ্ঠ দিয়ে ইতিমধ্যে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ডে স্থান করে নিয়েছেন। মানুষের ভালবাসার পাশাপাশি লতা অর্জন করেন পদ্মশ্রী, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারসহ অসংখ্য স্বীকৃতি। পান দ্বিতীয় ভারতীয় সংগীতশিল্পী হিসেবে ‘ভারতরত্ন’ খেতাব। এমনকি এই কিংবদন্তি সংগীতশিল্পীকে ‘ডটার অব দ্য নেশন’ উপাধিতেও সম্মানিত করে  ভারত সরকার।

আরও পড়ুন


সোনা চোরাচালান বন্ধ করা বড় চ্যালেঞ্জ : এনবিআর চেয়ারম্যান

news24bd.tv এসএম

;