বাঁশ-কাঠের সেতু বানালেন গ্রামবাসী
বাঁশ-কাঠের সেতু বানালেন গ্রামবাসী

বাঁশ-কাঠের সেতু বানালেন গ্রামবাসী

শেখ রুহুল আমিন,ঝিনাইদহ

এক সময় দুই পাড়ের মানুষের একমাত্র যোগাযোগের বাহন ছিল নৌকা পারাপার। নদীতে ব্রিজ না থাকায় বছরের পর বছর বিচ্ছিন্ন ছিল দুই ইউনিয়ন। শিক্ষা-দীক্ষা ও অর্থনৈতিক উন্নয়নেসহ একে অপরের সাথে বিচ্ছিন্ন হয়ে থাকার কারণে সম্পর্ক উন্নয়নে পিছিয়েও ছিল। কিন্তু এবার স্ব-উদ্যোগে বেইলি ব্রীজ নির্মাণ করে দুই জনপদকে এক করলো এলাকাবাসী।

ঘটনাটি ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার ১নং ত্রিবেনী ও ৩নং দিগনগর ইউনিয়নে। এই দুইটি ইউনিয়নের সুফল ভোগ করছেন ৩২টি গ্রামের প্রায় ৩৩হাজার মানুষ।

জানা যায়, উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামের যুব সমাজের স্ব-উদ্যোগে প্রায় ৪লক্ষ টাকা ব্যায়ে বাঁশ ও কাঠ দিয়ে কাঁলী নদীতে তৈরী করা হয়েছে বেইলি ব্রীজটি। আবারো ২০২২ সালে দুই এলাকার মানুষের টাকায় নির্মাণ করা হয় দৃষ্টিনন্দন এ ব্রীজটি।

এর আগে ২০১৮ সালের প্রথম দিকে ব্রীজটি নির্মাণ করলে ভেঙে পড়ে কাঠের ওই ব্রীজটি।

এরপর শ্রীরামপুর গ্রামের দোকানী লিংকন মোল্ল্যা জানান, একটি সেতুর অভাবে দীর্ঘদিন ধরে দুই পাড়ের জনপদের যোগাযোগ বিছিন্ন হয়ে পড়িছিল। স্কুল কলেজে যাতায়াত ও কাঁচামাল বিক্রয় এবং কৃষি পণ্য আনা-নেওয়ার জন্য ঘুরতে হতো দীর্ঘ ৫/৬ কিলোমিটারের পথ। তাই একটি সেতু নির্মাণের দাবি ছিল দুই গ্রামের বাসিন্দাদের। কিন্তু দীর্ঘদিনেও তাদের এ দাবি পূরণ হয়নি। তাই তারা নিজেরাই টাকা তুলে এ ব্রীজ নির্মাণ করেছেন।

শ্রীরামপুর গ্রামের বাসিন্দা রহমান আলী জানান, সেতুটি কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে একটি দর্শনীয় স্থান। প্রতিনিয়ত বিভিন্ন গ্রাম থেকে এবং ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশেই অবস্থিত হওয়ায় শিক্ষার্থীরা প্রতিদিন জায়গাটি দেখতে ভিড় জমাচ্ছে।

শ্রীরামপুর আরেক বাসিন্দা ইসলাম উদ্দিন জানান,নদীর দুই পাড়ে দুই এলাকার মানুষের রয়েছে চাষাবাদ। যোগাযোগের জন্য আমাদের ৫/৬ কিলোমিটার পথ ঘুরে আসতে হতো অথবা নৌকা করে নদী পার হতে হয়। বর্তমানে ব্রীজটি নির্মাণ করায় আমাদের সাময়িক সুবিধা হচ্ছে।

রতনপুর গ্রামের মোঃ রহিম হোসেন জানান,আমাদের নদীর পশ্চিম পাশে অবস্থিত সবচেয়ে বড় শেখপাড়া বাজার। সেই সাথে রয়েছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, শেখপাড়া দুঃখী মাহমুদ কলেজ। গ্রামবাসীর নানা প্রয়োজনে প্রতিনিয়ত যাতায়াত করা লাগে। তাই কাঠের ব্রীজটির ফলে আমরা সহজে গন্তব্যে পৌচ্ছাতে পারছি। সরকারের কাছে দাবি এখানে যেন স্থায়ীভাবে একটি  ব্রীজ নির্মাণ দেওয়া হয়।

news24bd.tv/আলী