দুধ ত্বকের জন্য বেশ উপকারী
দুধ ত্বকের জন্য বেশ উপকারী

দুধ ত্বকের জন্য বেশ উপকারী

অনলাইন ডেস্ক

দুধ শুধু পান করা নয়, ত্বকেও ব্যবহার করুন। কেননা দুধ ত্বকের জন্যও বেশ উপকারী। এতে থাকা ল্যাকটিক অ্যাসিড ত্বক উজ্জ্বল করতে সক্ষম। ত্বকের যত্নে কাঁচা দুধের ব্যবহার প্রাচীনকাল থেকে হয়ে আসছে।

 

ত্বকের ধরণ যেমনই হোক না কেন কাঁচা দুধ ব্যবহার করলে স্কিনের উজ্জ্বলতা ফিরে আসবেই। কারণ দুধে রয়েছে ভিটামিন এ, ভিটামিন ডি, যা ত্বকে নতুন কোষ গঠনে সহায়তার পাশাপাশি ত্বকের ইলাস্টিসিটি বাড়িয়ে ত্বককে করে দাগমুক্ত আর প্রাণবন্ত।

এ ছাড়া, দুধে থাকা ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, সেলেনিয়াম ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখা সঙ্গে পোড়া দাগও দূর করতে সাহায্য করে।  

বলিরেখা দূর করে:

বয়সের ছাপ খুব স্বাভাবিক একটা ধারা। তবে কখনও ভুল ত্বক পরিচর্যার কারণে বা সূর্যের আলোকের জন্যও দেখা দিতে পারে বয়সের ছাপ। দুধের ল্যাকটিক অ্যাসিড বয়সের ছাপ কমিয়ে ত্বককে উজ্জ্বল ও মসৃণ করতে সহায়তা করে।

রোদে পোড়াভাব ও ক্ষয় কমাতে:

অতিরিক্ত রোদের কারণে ত্বকের ক্ষতি হয়। দুধে আছে ল্যাকটিক অ্যাসিড যা রোদের পোড়াভাব কমায় ও রোদের কারণে হওয়া ক্ষয় রোধ করে। ঠাণ্ডা দুধ তুলার সাহায্যে ত্বকে ব্যবহার করে ভালো ফলাফল পাওয়া যায়।

ময়েশ্চারাইজার:

ত্বক আর্দ্র রাখতে দুধ উপকারী। শীতে ত্বক আর্দ্র রাখতে ময়েশ্চারাইজার হিসেবে দুধ ব্যবহার করতে পারেন। এতে ত্বকের শুষ্কতা দূর করার পাশাপাশি স্বাস্থ্য ভালো হয়। চাইলে যে কোনো ধরনের ফেইস প্যাকের সঙ্গে দুধ যোগ করে ব্যবহার করতে পারেন।

ব্রণ কমায়:

কাঁচা দুধে প্রচুর ভিটামিন থাকে যা ত্বকের জন্য উপকারী। কাঁচা দুধ ব্রণ কমায় এবং বাড়তি তেল ও জীবাণু কমায়। দুধের ল্যাকটিক অ্যাসিড ব্রণ সৃষ্টিকারী ক্ষুদ্র জীবাণুর বিরুদ্ধে কাজ করে।

কাঁচা দুধ তুলার বলের সাহায্যে পরিষ্কার মুখে ব্যবহার করুন। নিয়মিত ব্যবহারে ধীরে ধীরে ব্রণ দূর হবে।

ঠোঁটের উজ্জ্বলতা ফেরায়: 

ঠোঁটের কালচেভাব দূর করতেও কাঁচা দুধের জুড়ি নেই। তুলা দিয়ে ৫ মিনিট ধরে কাঁচা দুধ নিয়ে ঠোঁট মুখে ভালো মানের লিপবাম অ্যাপ্লাই করুন।

news24bd.tv/ নাজিম

;