‘ফাঁসির মঞ্চ বানিয়ে কৃষকের আত্মহত্যা, বিরল ঘটনা’
‘ফাঁসির মঞ্চ বানিয়ে কৃষকের আত্মহত্যা, বিরল ঘটনা’

‘ফাঁসির মঞ্চ বানিয়ে কৃষকের আত্মহত্যা, বিরল ঘটনা’

জুবাইদুল ইসলাম, শেরপুর প্রতিনিধি

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী কৃষক দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি কৃষিবিদ হাসান জাফির তুহিন বলেছেন, বাংলাদেশের কোনো শ্রেণি-পেশার মানুষই এখন ভালো নেই। বিশেষ করে সবচেয়ে বেশি খারাপ অবস্থায় আছে কৃষক সমাজ। কারণ তারা ফসলের ন্যায্যমূল্য পাচ্ছে না। কিছুদিন আগে কৃষকরা ফসলের দাম না পেয়ে নিজের উৎপাদিত ফসলে আগুন লাগিয়ে দিয়েছে।

এটি একটি বিরল ঘটনা। সবশেষ ফাঁসির মঞ্চ বানিয়ে একজন কৃষক আত্মহত্যা করেছেন। ঘটনাটি সারাদেশ নাড়িয়ে দিয়েছে, আমাদের স্তম্ভিত করেছে। শুধু কৃষক নয়, দেশে অন্যান্য মানুষেরও আত্মাহুতির ঘটনা বেড়েছে।

তিনি ১১ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার সন্ধ্যায় শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে উপজেলার মানিকচাঁদপাড়া গ্রামে সেচপাম্প নিয়ে দ্বন্দ্বে প্রতিপক্ষের চাপে কৃষক শফিউদ্দিনের ফাঁসির মঞ্চ বানিয়ে আত্মহত্যার ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন।  

শেরপুর শহরের মাধবপুরস্থ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মো. হযরত আলীর বাসায় এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

এর আগে বিকেলে কৃষক শফিউদ্দিনের বাসায় গিয়ে তার স্বজনদের সমবেদনা জ্ঞাপন করেন কৃষকদল ও বিএনপি নেতৃবৃন্দ।

ওইসময় কৃষক শফিউদ্দিনের স্ত্রী আবেদা বেগমের হাতে ৩০ হাজার টাকার নগদ আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়।

পরে কৃষক শফিউদ্দিনের সেচপাম্প পরিদর্শন করে তার কবর জিয়ারত করেন তারা।

সংবাদ সম্মেলনে কৃষক দলের সভাপতি বলেন, কৃষকের আত্মহত্যার কারণ বর্তমানে দেশে অনির্বাচিত সরকার। এ সরকার সার, কীটনাশক, ডিজেল বিদ্যুৎসহ কৃষি উৎপাদন কাজে ব্যবহৃত সব সামগ্রীর দাম কয়েকগুণ বাড়িয়েছে। গত ১০ বছরে ১০ বার বিদ্যুতের দাম বাড়ানো হয়েছে। আমাদের সময়ে ইউরিয়া সারের দাম ছিল ছয় টাকা কেজি। আর এখন ইউরিয়া সারের দাম বৃদ্ধি করে ২৬ টাকা করা হয়েছে। প্রত্যেকটি কৃষি উৎপাদন পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি করে এ সরকার কৃষকদের হতাশ করেছে। এ হতাশার কারণেই আজকের আত্মাহুতির মতো ঘটনা ঘটছে। এসব ঘটনা থেকে আমরা পরিত্রাণ চাই। সকল শ্রেণি-পেশার মানুষ এ সরকার থেকে মুক্তি চায়।

তিনি আরও বলেন, আমরা মনে করি সরকার করোনার নাম করে সারাদেশে আমাদের রাজনৈতিক কর্মসূচিতে বাধা সৃষ্টি করছে।  

তিনি বলেন, বিএনপি সবসময় নির্যাতিত-নিপীড়িত মানুষের পাশে ছিল। এটি কোনো রাজনৈতিক কর্মসূচি নয়, বরং সম্পূর্ণ মানবিক কারণে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশনায় আমরা এসেছি সমবেদনা জানাতে, সহমর্মিতা জানাতে।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে কেন্দ্রীয় কৃষক দল নেতা ও বগুড়া-৪ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য মোশাররফ হোসেন, কেন্দ্রীয় কৃষক দলের সহসভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আবুল বাশার আকন্দ, সাধারণ সম্পাদক মো. শহিদুল ইসলাম বাবুল, কৃষক দল নেতা মজিবর রহমান চৌধুরী, অবসরপ্রাপ্ত ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট মো. রিয়াজ উদ্দিন, মো. শামসুর রহমান, আব্দুল্লাহ আল নাইম, মো. মাজহারুল ইসলাম, মো. সাদেকুল ইসলাম, শেরপুর জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য মো. মাহমুদুল হক রুবেল, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মো. হযরত আলী, জেলা কৃষক দলের আমিনুল ইসলাম আঙুর, সাধারণ সম্পাদক মো. রুহুল আমিনসহ স্থানীয় দলীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত ২ ফেব্রুয়ারি বুধবার ভোররাতে নালিতাবাড়ী উপজেলার মানিকচাঁদ গ্রামের কৃষক শফিউদ্দিন সেচপাম্প নিয়ে দ্বন্দ্বে প্রতিপক্ষের চাপে নিজে ফাঁসির মঞ্চ বানিয়ে ফসলের মাঠে আত্মহত্যা করেন। এ ঘটনায় প্রতিপক্ষ আহাম্মদ আলী ও স্থানীয় ইউপি সদস্য মজিবর রহমানকে আসামি করে নিহতের বড় ছেলে আনোয়ার হোসেন বাদী হয়ে আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলাটি বর্তমানে তদন্তাধীন রয়েছে।

news24bd.tv তৌহিদ