যেকোনো সময় ‘যুদ্ধ’ শুরু হতে পারে: রাশিয়া
যেকোনো সময় ‘যুদ্ধ’ শুরু হতে পারে: রাশিয়া

সংগৃহীত ছবি

যেকোনো সময় ‘যুদ্ধ’ শুরু হতে পারে: রাশিয়া

অনলাইন ডেস্ক

রাশিয়া-ইউক্রেন সীমান্তের পরিস্থিতির অবনতি ঘটে সেখানে যেকোনো সময় যুদ্ধ পরিস্থিতির সৃষ্টি হতে পারে বলে ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ জানিয়েছেন। বিবিসি বৃহস্পতিবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

সাংবাদিকদের পেসকভ বলেন, যেকোনো মুহূর্তে তথ্য আক্রমণের ক্ষেত্র থেকে এমন পরিণতির দিকে যাওয়ার ঝুঁকি আছে, যা আমাদের সীমান্তের কাছাকাছি যুদ্ধের একটি নতুন আগুন জ্বলে উঠতে পারে।

রাশিয়া জানায়, ইউক্রেনের রুশপন্থী বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত ডনবাস অঞ্চলে সহিংসতার খবরে তারা গভীরভাবে উদ্বিগ্ন এবং সেখানকার পরিস্থিতি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে।

সীমান্ত থেকে কিছু রাশিয়ান সৈন্য প্রত্যাহারের দাবিরও পুনরাবৃত্তি করেছে রাশিয়া। তবে প্রত্যাহারের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে কিছুটা সময় লাগবে বলেও জানিয়েছে তারা।

এদিকে, রাশিয়া ইউক্রেনে আগ্রাসনের পরিকল্পনা করছে এমন খবরও প্রত্যাখ্যান করেছেন পেসকভ। সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে মস্কো বারবারই এই দাবি অস্বীকার করে আসছে।

অন্যদিকে, রাশিয়া ইউক্রেনে হামলা করার জন্য বাহানা খুঁজছে বলে দাবি করেছে যুক্তরাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

সাম্প্রতিক পরিসংখ্যান অনুযায়ী-ইউক্রেনের সক্রিয় সেনা রয়েছে ২ লাখ অন্যদিকে রাশিয়ার ৮ লাখ ৫৫ হাজার। ইউক্রেনের রিজার্ভ সেনা ২লাখ ৫০ হাজার এবং রাশিয়ার সমান সংখ্যক রিজার্ভ সেনা রয়েছে ২ লাখ ৫০ হাজার। ইউক্রেনের বিমান রয়েছে ৩১৮টি অন্যদিকে রাশিয়ার বিমান রয়েছে ৪১৭৩। ইউক্রেনের যুদ্ধবিমান রয়েছে ৬৯টি অন্যদিকে রাশিয়ার যুদ্ধবিমান রয়েছে ৭৭২ টি।  

এখন পর্যন্ত ইউক্রেন বিশেষ অভিযান পরিচালনা করেছে ৫টি। অন্যদিকে রাশিয়া বিশেষ  অভিযান পরিচালনা করেছে ১৩২ টি । ইউক্রেনের হেলিকপ্টার রয়েছে ১১২টি। অন্যদিকে রাশিয়ার ১৫৪৩টি হেলিকপ্টার রয়েছে। ইউক্রেনের আক্রমণ সক্ষম হেলিকপ্টার রয়েছে ৩৪টি অন্যদিকে রাশিয়ার ৫৪৪টি আক্রমণ সক্ষম হেলিকপ্টার রয়েছে। ইউক্রেনের সাঁজোয়া যান রয়েছে ১২৩০৩টি অন্যদিকে রাশিয়ার ৩০১২২টি সাঁজোয়া যান রয়েছে।  

ইউক্রেনের সয়ংক্রিয় গোলা রয়েছে ১০৬৭টি অন্যদিকে রাশিয়ার ৬৫৭৪টি সয়ংক্রিয় গোলা রয়েছে। ইউক্রেনের ভ্রাম্যমান রকেট প্রজেক্টর রয়েছে ৪৯০টি অন্যদিকে রাশিয়ার ৩,৩৯১ টি ভ্রাম্যমান রকেট প্রজেক্টর রয়েছে। ইউক্রেনের এয়ারক্রাফট কেরিয়ার নেই অন্যদিকে রাশিয়ার ১ টি এয়ারক্রাফট কেরিয়ার রয়েছে। ইউক্রেনের সাবমেরিন নেই অন্যদিকে রাশিয়ার ৭০ টি সাবমেরিন রয়েছে। ইউক্রেনের রণতরী ১টি অন্যদিকে রাশিয়ার ১১ টি রণতরী রয়েছে। এর সাথে রাশিয়া প্রায় ৭ হাজার পারমানবিক ওয়ার হেডের মালিক।

news24bd.tv/আলী