ঘুমের মধ্যে ওজন কমাবে যেসব খাবার 
ঘুমের মধ্যে ওজন কমাবে যেসব খাবার 

প্রতীকী ছবি

ঘুমের মধ্যে ওজন কমাবে যেসব খাবার 

সাবরিনা ফারিন প্রত্যাশা

আপনার ওজন স্বাভাবিকের তুলনায় হয়তো অনেক বেশি। কিন্তু কিছুতেই ওজন কমানো যাচ্ছে না। এ নিয়ে আপনি হয়তো বেশ টেনশনে পড়েছেন।

আচ্ছা, রাতে ঘুমের মধ্যেই যদি ওজন কমানো যায় তাহলে কেমন হয়?

বিষয়টি অবাক করার মতো শোনালেও এটি ঠিক যে, ওজন কমানোর সহজ সমাধান হতে পারে কয়েকটি প্রাকৃতিক উপাদানের একটি মিক্সড ফুড।

রাতে ঘুমানোর দুই ঘন্টা আগে এই খাবার গ্রহণ করলে বেশ উপকার মিলবে। তবে এই সময়ের মধ্যে অন্য কোনো খাবার না খাওয়াই উত্তম।  

যা যা লাগবে
১ কাপ পানি, ১ চা চামচ মাচা গ্রিন টি, ১/২ চা চামচ লেবুর খোসা, ১ চা চামচ আদা গুঁড়া, ১/২ চা চামচ দারুচিনি গুঁড়া, অপরিশোধিত প্রাকৃতিক মধু ২ চা চামচ।

প্রক্রিয়া
সবগুলো উপাদান এক সঙ্গে ব্লেন্ডারে পেস্ট করে প্রতিদিন ঘুমানোর ২ ঘন্টা আগে খান।

রাতের প্রধান খাবার খাওয়ার পর এই মিক্সড ফুড খেলে এটি শরীরকে ডিটক্স করবে, অতিরিক্ত ওজনও কমাবে। রাতের ঘুমও আরামদায়ক করে তুলবে।  

গুণাগুণ
এই মিক্সড ফুডে থাকা ২ চা চামচ মধুতে মিলবে ৪০ ক্যালরি। মাচা গ্রিন টি বিশেষ ধরণের চা যা ‘ফ্রিজ ড্রাইড’ পদ্ধতিতে উৎপাদন করা হয়। লেবুর খোসায় ‘পয়েকটিন’ নামক উপাদান চর্বি কমায়। এতে থাকা সাইট্রাস বায়ো ফ্লেভোনয়েড স্ট্রেস বা টেনশন কমায়। এতে থাকা আদা ক্ষুধা বিলম্বে ঘটায়, অ্যালার্জি রিঅ্যাকশন ও মাসল পেইন কমায়। এতে তাকা দারুচিনি ৫.৩৯ এমএম সিস্টোলিক পর্যন্ত রক্তচাপ কমায়। এটি ডায়াবেটিসের মাত্রা কমায়, প্রচলিত ঠান্ডা, কফ-কাশি প্রতিহত করে। আর মন চনমনে ও উৎফুল্ল রাখে মধু।  

ভালো ঘুমও কিন্তু জরুরী
রাতে ৭-৮ ঘন্টা স্বাভাবিক ঘুম হলে ওজনও স্বাভাবিক থাকে। অনিদ্রা থাকলে খাদ্য ঠিকভাবে হজম হয় না, মুটিয়ে যায় শরীর। অনিদ্রা ক্ষুধা বাড়ায়। ফলে বেশি খাওয়া হয়, আর ওজন বাড়ে। তাই ঘুমানোর অন্তত ৪ ঘন্টা আগে রাতের প্রধান খাবার সেরে ফেলা উচিত।  

সেলফোন, ল্যাপটপ, টিভির নীল আলো শরীরে মেলাটোনিন হরমোন উৎপাদনে বাধা সৃষ্টি করে। পর্যাপ্ত মেলাটোনিনের জোগান না হলে ঘুমের ব্যাঘাত ঘটে। তাই  ঘুমের এক ঘন্টা আগে এসবের ব্যবহার বন্ধ করুন।  

লেখক : পুষ্টিবিদ ও ডায়েট কনসালট্যান্ট

news24bd/এআর-কাবুল