সীমান্ত থেকে রাশিয়ার সেনা সরানোর দাবি মিথ্যা : যুক্তরাষ্ট্র

সীমান্ত থেকে রাশিয়ার সেনা সরানোর দাবি মিথ্যা : যুক্তরাষ্ট্র

মাসুদ রানা

এবার রুশপন্থি বিচ্ছিন্নতাবাদীদের ওপর ইউক্রেনের হামলার অভিযোগ উঠেছে। এমনকি কিয়েভ সীমান্ত থেকে রাশিয়ার সেনা সরানোর দাবিকে মিথ্যা  হিসেবে অভিহিত করেছে যুক্তরাষ্ট্র বরং সীমান্তে আরও রুশ সেনা জড়ো হচ্ছে বলে অভিযোগ ওয়াশিংটনের। এদিকে রাশিয়ার হুমকির মুখে পূর্বাঞ্চলে শক্তি জোরদারে প্রস্তুত হচ্ছে ন্যাটো।  

যুদ্ধে রূপ নেওয়ার আশঙ্কার মধ্যেই দিন দয়েক আগে  ইউক্রেন সীমান্ত থেকে কিছু সংখ্যক সেনা ফিরিয়ে নেওয়ার কথা জানিয়েছিল মস্কো।

এতে খানিকটা শান্তির সুবাতাস বইতে শুরু করেছিলো  ইউক্রেন উত্তেজনায়। তবে সেনা সরানোর বিষয়ে মস্কোর এই দাবিকে মিথ্যা বলে আখ্যায়িত করেছে যুক্তরাষ্ট্র। বরং তাদের অভিযোগ, গেল কয়েকদিনে আরও কয়েক হাজার রুশ সেনা ইউক্রেন সীমান্তে জড়ো হয়েছে। যার একটি স্যাটেলাইটে চিত্র প্রকাশ হয়েছে।

ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে রাশিয়া সমর্থিত বিচ্ছিন্নতাবাদীদের ওপর দেশটির সরকারি বাহিনী বৃহস্পতিবার হামলা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় বিচ্ছিন্নবাদীদের লক্ষ্য করে ইউক্রেনের সেনারা পৃথক চারটি হামলা চালায়। তবে ইউক্রেনের সামরিক বাহিনী অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছে, বিদ্রোহীরাই আগে তাদের ওপর হামলা করে।

তবে থেমে নেই পশ্চিমাদের যুদ্ধ প্রস্তুতি রাশিয়া ইউক্রেন আক্রমণ করলে ভারতকে পাশে চাইছে ওয়াশিংটন । এদিকে অভিযোগ আর পাল্টা অভিযোগের মাঝে সংকট সমাধানে চলছে জোর প্রচেষ্টা।  ইউক্রেন ইস্যুতে বেলজিয়ামের রাজধানী ব্রাসেলসে বৃহস্পতিবার থেকে দুই দিনের বৈঠকে অংশ নিচ্ছেন ন্যাটো জোটের প্রতিরক্ষামন্ত্রীরা। ন্যাটো বলছে রাশিয়া যদি সুযোগ দেয় তাহলে ন্যাটো কূটনৈতিক আলোচনার জন্য প্রস্তুত। তবে রাশিয়ার হুমকির মুখে পূর্বাঞ্চলে শক্তি জোরদারেও আগ্রহী তারা।

news24bd.tv/আলী  

;