কবি কাজী রোজীর মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক
কবি কাজী রোজীর মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক

কাজী রোজীর মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক

কবি কাজী রোজীর মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক

অনলাইন ডেস্ক

সাবেক সংসদ সদস্য, রাজনীতিবিদ ও বিশিষ্ট কবি কাজী রোজী আর নেই। শনিবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) রাত ২টা ৩০ মিনিটের দিকে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৩ বছর। এই গুণী ব্যক্তির মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ রবিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) সকালে গণমাধ্যমে পাঠানো পৃথক শোকবার্তায় গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেন তারা।

শোকবার্তায় রাষ্ট্রপতি বলেন, 'কাজী রোজী তার লেখনীর মাধ্যমে মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিকাশে কাজ করে গেছেন। একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচার প্রক্রিয়ায়ও তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন। '

রাষ্ট্রপতি মরহুমার রুহের মাগফিরাত কামনা করেন। এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

এদিকে, শোকবার্তায় প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'কবিতার পাশাপাশি যুদ্ধাপরাধীদের বিচারে কবি কাজী রোজীর সাহসী ভূমিকা স্মরণীয় থাকবে। '

প্রধানমন্ত্রী মরহুমার আত্মার মাগফিরাত কামনা এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।  

কাজী রোজী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন। এ ছাড়া নানান শারীরিক জটিলতা নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে ছিলেন।

পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, কাজী রোজীর মরদেহ হাসপাতাল থেকে সেগুনবাগিচার বাসভবনে নেওয়া হয়েছে। পরিবারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তাকে মিরপুর কবরস্থানে দাফন করা হতে পারে।

কাজী রোজী ১৯৪৯ সালের ১ জানুয়ারি সাতক্ষীরায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগ থেকে সাহিত্যে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেন।

ষাটের দশকে কবিতা লেখা শুরু করেন কাজী রোজী। তার উল্লেখযোগ্য কাব্যগ্রন্থগুলো হলো, ‘লড়াই’, ‘পথঘাট মানুষের নাম’, ‘আমার পিরানের কোনো মাপ নেই’ প্রভৃতি।

আরও পড়ুন: কবি কাজী রোজী আর নেই


কবিতায় বিশেষ অবদানের জন্য ২০১৮ সালে বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার ও ২০২১ সালের বাংলাদেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা একুশে পদকে ভূষিত হয়েছেন তিনি।

news24bd.tv রিমু