ইউক্রেনের সঙ্গে আলোচনার আভাস রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর
ইউক্রেনের সঙ্গে আলোচনার আভাস রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

সংগৃহীত ছবি

ইউক্রেনের সঙ্গে আলোচনার আভাস রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

অনলাইন ডেস্ক

টানা কয়েক দিনের উত্তেজনার পর বৃহস্পতিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের ঘোষণা দেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিন। এরপর ইউক্রেনে হামলা শুরু করে রুশ সেনারা। দিনভর তিন দিক থেকে ইউক্রেনে হামলা চালিয়েছে তারা। এতে ইউক্রেনের ১৩৭ সেনা নিহত হয়েছেন।

ঘর ছাড়া হয়েছেন অন্তত ১ লাখ মানুষ। দ্বিতীয় দিনেও চলছে তুমুল লড়াই। ইতোমধ্যে ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে ঢুকে পড়েছে রাশিয়ার সৈন্যরা।

এদিকে যুদ্ধ ঘোষণার প্রায় ৪৮ ঘণ্টা পর ইউক্রেনকে আলোচনার টেবিলে বসার বার্তা দিল মস্কো।  

সংবাদ সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ জানিয়েছেন, ইউক্রেন যদি অস্ত্র ফেলে দেয় তাহলে তারা আলোচনায় বসতে প্রস্তুত।

বৃহস্পতিবার ইউক্রেনের বিরুদ্ধে সেনা অভিযানের ঘোষণা দেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। তারপর থেকেই ইউক্রেনের ওপর ক্ষেপণাস্ত্র বর্ষণ করতে শুরু করে রুশ সেনাবাহিনী।  

বৃহস্পতিবার প্রথম দিনের যুদ্ধে ইউক্রেনের সবচেয়ে বড় শহর খারকিভ এবং পরমাণু বিদ্যুৎ কেন্দ্র চেরনোবিলের দখল নেয় রুশ বাহিনী। যুদ্ধের দ্বিতীয় দিনে পুতিন বাহিনী রাজধানী কিভের দোরগোরায় পৌঁছেছে বলে খবর প্রকাশ হয়েছে।  

শুক্রবার বিকালে রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী শর্তসাপেক্ষ আলোচনায় বসার এই ঘোষণা দেন।

যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বেন ওয়ালেস দাবি করেছেন, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত রাশিয়ার ৪৫০ সেনা নিহত হয়েছেন।

news24bd.tv/আলী  

;