‘সন্দেহভাজনদের গ্রেফতার করে হত্যা করছে ইউক্রেন সেনারা’
‘সন্দেহভাজনদের গ্রেফতার করে হত্যা করছে ইউক্রেন সেনারা’

সংগৃহীত ছবি

আল জাজিরা

‘সন্দেহভাজনদের গ্রেফতার করে হত্যা করছে ইউক্রেন সেনারা’

অনলাইন ডেস্ক

ইউক্রেনের রুশ আগ্রাসনের তৃতীয় দিন চলছে। এদিন দেশটির রাজধানী কিয়েভে প্রবল প্রতিরোধের মুখোমুখি হতে হয়েছে রুশ সেনাবাহিনীকে। দুই দেশের সেনাদের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ চলছে। এদিকে মধ্য ইউক্রেনের মহাসড়ক থেকে আল জাজিরা প্রতিবেদক অ্যান্ড্রিও সিমনস জানিয়েছেন, দেশের গ্রাম এলাকাতেও ‘উদ্বেগজনক পরিস্থিতি’ বিরাজ করছে।

 

আল জাজিরার এই সাংবাদিকের  ভাষ্য, ইউক্রেনের সেনারা পথে পথে চেকপোস্ট, ব্যারিকেড বসিয়েছে।  

তিনি বলেন, তাদেরকে অবসাদগ্রস্ত দেখাচ্ছে। তারা সন্দেহভাজন নাশকতামূলক কর্মকাণ্ডকারীদের গ্রেফতার করে হত্যা করছে। নিঃসন্দেহে সড়কে চলাচলকারীদের জন্য এটি ভয়ংকর।  

অন্যদিকে সিএনএনের খবর বলছে, কিয়েভে শহরজুড়ে কারফিউয়ের সময় বাড়ানো হয়েছে। রুশ সেনাদের অগ্রসরের মুখে কর্তৃপক্ষ এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

কিয়েভের মেয়র রুশ বাহিনীকে কার্যকরভাবে প্রতিরোধের জন্য বিকাল ৫টা থেকে সকাল ৮টা পর্যন্ত কারফিউ জারি করেছেন। বিশেষ পাস ছাড়া কোনো যানবাহন কিংবা জনসাধারণের চলাচল নিষিদ্ধ রয়েছে।  

সবশেষ বিবিসি ইউক্রেনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে জানিয়েছে, রুশ হামলার পর দেশটিতে অন্তত ১৯৮ জন নিহত হয়েছেন এবং অন্তত আরও ১ হাজারেরও অধিক মানুষ মারাত্মকভাবে আহত হয়েছেন। এবং যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর বিগত ৪৮ ঘণ্টায় ১ লাখেরও অধিক মানুষ ইউক্রেন ত্যাগ করেছেন।  

news24bd.tv/আলী