ইউক্রেন আক্রমণ বন্ধে যেসব শর্ত দিলো পুতিন
ইউক্রেন আক্রমণ বন্ধে যেসব শর্ত দিলো পুতিন

সংগৃহীত ছবি

ইউক্রেন আক্রমণ বন্ধে যেসব শর্ত দিলো পুতিন

অনলাইন ডেস্ক

ইউক্রেনে রাশিয়ার হামলা বিষয়ে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে আজ রবিবার (৬ মার্চ) টেলিফোনে কথা বলেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান। যুদ্ধ বন্ধের শর্ত হিসেবে পুতিন বলেন, ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন বন্ধ করার জন্য মস্কোর সব দাবি পূরণ করতে হবে ইউক্রেনকে। সংবাদ আরটির।

ভ্লাদিমির পুতিন বলেন, প্রতিবেশী দেশে মস্কোর 'বিশেষ অভিযান' শুধুমাত্র তখনই বন্ধ হবে যদি ইউক্রেন তার সামরিক পদক্ষেপ বন্ধ করে এবং রাশিয়ার দাবি পূরণ করে।

সংঘাত বিষয়ে শান্তিপূর্ণ সমাধান খুঁজতে ইউক্রেনীয় পক্ষের সঙ্গে বিদেশী অংশীদারদের নিয়ে সংলাপের জন্য রাশিয়া প্রস্তুত।

পুতিন আরো বলেন, রাশিয়ান সামরিক বাহিনী বেসামরিক মানুষের জীবন রক্ষার জন্য যথাসাধ্য চেষ্টা করে যাচ্ছে। তারা শুধুমাত্র ইউক্রেনের সামরিক স্থাপনায় ‘সার্জিক্যাল স্ট্রাইক’ চালাচ্ছে।  

এরদোগান বলেন, মানবিক কারন এবং একটি রাজনৈতিক সমাধানের জন্য ইউক্রেনে শর্ত সাপেক্ষে একটি জরুরি সাধারণ যুদ্ধবিরতি প্রয়োজন।

আগামী সপ্তাহে দক্ষিণ তুরস্কে রাশিয়া ও ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের মধ্যে আলোচনার আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

উল্লেখ্য, মস্কো এবং কিয়েভ উভয়ের সঙ্গেই সুসম্পর্ক রয়েছে তুরস্কের। ন্যাটো সদস্য হওয়া সত্ত্বেও ইউক্রেনে রুশ সামরিক হামলার পর থেকে তুরস্ক একটি নিরপেক্ষ অবস্থান বজায় রাখার চেষ্টা করছে। তারা রাশিয়ার আগ্রাসনের নিন্দা করেছে এবং ইউক্রেনের আঞ্চলিক অখণ্ডতাকে সমর্থন করেছে। আবার মস্কোকে সব দিক থেকে বিচ্ছিন্ন করার কঠোর আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞারও বিরোধিতা করেছে তুরস্ক।  

news24bd.tv/এআর-কাবুল