মেয়েকে ধর্ষণের দায়ে বাবার যাবজ্জীবন
মেয়েকে ধর্ষণের দায়ে বাবার যাবজ্জীবন

মেয়েকে ধর্ষণের দায়ে বাবার যাবজ্জীবন

অনলাইন ডেস্ক

রংপুরে নিজের মেয়েকে ধর্ষণের দায়ে এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। ওই ব্যক্তির নাম আব্দুল মালেক (৪৯)।

সোমবার (৭ মার্চ) দুপুর ১টায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩ এর বিচারক এম আলী আহমেদ এ রায় দেন।

এসময় অভিযুক্ত আব্দুল মালেক এজলাসে উপস্থিত ছিলেন।

মামলা ও আদালত সূত্রে জানা গেছে, পীরগঞ্জের বড় আলমপুর ইউনিয়নের ফতেহপুর ফকিরা গ্রামের আব্দুল মালেক ২০১৮ সালের ৪ আগস্ট রাতে নিজ বাড়িতে ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়া নিজের মেয়েকে একা পেয়ে ধর্ষণ করেন।

এরপর ঘটনাটি কাউকে না জানানোর জন্য ভয়ভীতি দেখান। পরে মেয়েটি নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে তার মাকে বিষয়টি খুলে বলে।

এর আগেও একাধিকবার ধর্ষণ করা হয়েছে বলে জানায় মেয়েটি।

এ ঘটনায় ১৪ আগস্ট আব্দুল মালেককে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেন মেয়েটির মা।

তদন্ত শেষে ২০১৯ সালের ১২ জানুয়ারি আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন তৎকালীন পীরগঞ্জ থানার এসআই দেবাশীষ কুমার রায়।

প্রায় তিন বছর মামলার বিচারকাজ চলার পর সোমবার রায় ঘোষণা করেন বিচারক।

যাবজ্জীবন ছাড়াও পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরও দুই মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়।

রায়ের প্রতিক্রিয়ায় বাদীপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট কাজী মাহফুজুল ইসলাম বলেন, ধর্ষণের শিকার মেয়েটি অভাবি পরিবারের সন্তান। ঘটনার পর থেকে তার পড়াশোনা বন্ধ হয়ে যায় এবং মা ও ভাইকে নিয়ে নানা বাড়িতে আশ্রয় নেয়।

পরে সংসারের বোঝা টানতে গিয়ে পোশাক কারখানায় কাজ নেয় মেয়েটি। এ অবস্থায় আসামির ফাঁসির আদেশ আশা করেছিলাম।

news24bd.tv তৌহিদ