ন্যাটোতে যোগ দিতে চান না ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট 

ন্যাটোতে যোগ দিতে চান না ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট 

আসমা তুলি

ন্যাটোতে যোগ দিতে চান না ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। সেইসঙ্গে দোনেৎস্ক ও লুহানস্কের বিষয়েও ছাড় দিতে রাজি তিনি। এএফপির প্রতিবেদনে এমন খবর জানানো হয়। কিয়েভ-মস্কোর চলমান সংঘাতে জেলেনস্কির এমন অবস্থান রাশিয়াকে শান্ত করার প্রচেষ্টা হিসেবেই দেখা হচ্ছে।

 

রাশিয়ার কাছে মাথা নত না করে, যুদ্ধ চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিলেও কার্যত মস্কোকে সন্তুষ্ট করার নানান প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট । তিনি এরইমধ্যে বুঝে গেছেন, ন্যাটো রাশিয়াকে চটাবে না। তাই ইউক্রেনের বহুল কাঙ্খিত মার্কিন নেতৃত্বাধীন সামরিক জোটে যোগদানের ইচ্ছা আপাতত কবর দিয়েছেন তিনি।

আমরা বুঝে গেছি; ন্যাটো ইউক্রেনকে সদস্যপদ দিতে প্রস্তুত নয়। বিতর্কের ভয় পায় এ জোট। রাশিয়ার সঙ্গে সংঘাতে যেতেও চায় না তারা।

জেলেনস্কি বলেন, তিনি  এমন দেশের প্রেসিডেন্ট হতে চান না, যারা হাঁটু গেড়ে ভিক্ষা চায়। এবিসি নিউজে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এমন মনোভাবই ব্যক্ত করেন তিনি।

এখানেই শেষ নয়, রাশিয়ার প্রতি সুর নরম করে  দোনেৎস্ক ও লুহানস্ককে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার বিষয়টিও মেনে নেওয়ার ইঙ্গিত দেন এই প্রেসিডেন্ট।

ইউক্রেনের রুশ আগ্রাসনের অন্যতম কারণ ন্যাটোতে কিয়েভকে অর্ন্তভুক্তির সম্ভবনার বিষয়টি। নিজেদের নিরাপত্তা রক্ষায় ইউক্রেনকে ন্যাটোতে অর্ন্তভুক্ত না করার দাবি জানিয়ে আসছে রাশিয়া । তাই জেলেনস্কির এসব অবস্থান আমলে নিয়ে মস্কো যদি ইউক্রেনের ওপর আস্থা রাখে তবে  যুদ্ধ  থামবে বলে মনে করছেন অনেকে।
news24bd.tv/আলী   

;