ঢাবি শিক্ষার্থীকে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনে বাধ্য করার অভিযোগ! 
ঢাবি শিক্ষার্থীকে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনে বাধ্য করার অভিযোগ! 

প্রতীকী ছবি

আপত্তিকর ছবি তুলে ব্ল্যাকমেইল

ঢাবি শিক্ষার্থীকে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনে বাধ্য করার অভিযোগ! 

অনলাইন ডেস্ক

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে গোপনে অন্তরঙ্গ মুহূর্তের স্ক্রিনশট দিয়ে ব্ল্যাকমেইল করে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনে বাধ্য করার অভিযোগ উঠেছে মিনহাজুল বিন মাহমুদ (২৭) নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে।  বৃহস্পতিবার রাতে এ ঘটনায় ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী বাদী হয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন শাহবাগ থানায়। পরে অভিযুক্তকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়।  

অভিযোগপত্রে বলা হয়, পারিবারিকভাবে বিয়ের কথা চলায় মিনহাজের সঙ্গে ওই শিক্ষার্থীর ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক তৈরি হয়।

এ সুযোগে এক পর্যায়ে গোপনে অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবি তুলে রাখে মিনহাজ।  এরপর এসব ছবি দেখিয়ে ব্ল্যাকমেইল করে বিয়ের আগেই তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কের প্রস্তাব দেয়। প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল করে দেওয়ার হুমকি দেওয়া হয়।

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী অভিযোগ, সম্পর্ক থাকা অবস্থায় তিনি গোপনে অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবি নেন। যেগুলো দিয়ে তিনি ব্ল্যাকমেইল করতে থাকেন ও জোরপূর্বক তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনে বাধ্য করেন। তার কথা না শুনলে সোশ্যাল মিডিয়া ও ইন্টারনেটে এসব ছবি ভাইরাল করে দেওয়ার হুমকি দিতেন। এক পর্যায়ে আমি এগুলো সহ্য করতে না পেরে তথ্যপ্রমাণসহ লিখিত অভিযোগ দিয়েছি।

শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মওদূত হাওলাদার অভিযোগের বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী অভিযোগপত্র দিয়েছেন। আমরা অভিযোগ তদন্ত করে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবো। এরই মধ্যে অভিযুক্ত মিনহাজুল বিন মাহমুদকে এখন আমাদের হেফাজতে রাখা হয়েছে।

news24bd.tv/ কামরুল 

;