মাছ বিক্রির টাকা লুটে নিতে ঘের মালিককে গলাকেটে হত্যা!
মাছ বিক্রির টাকা লুটে নিতে ঘের মালিককে গলাকেটে হত্যা!

প্রতীকী ছবি

মাছ বিক্রির টাকা লুটে নিতে ঘের মালিককে গলাকেটে হত্যা!

 বাগেরহাট প্রতিনিধি

বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলার পল্লীতে মাছ বিক্রির টাকা লুটে নিতে শৈলেন্দ্রনাথ মণ্ডল (৭০) নামে এক মাছের ঘের মালিককে গলাকেটে হত্যা করা হয়েছে।  

রোববার সকালে উপজেলার খিলিগাতী গ্রামের একটি চিংড়ি ঘেরের পাশে ধান ক্ষেত থেকে বৃদ্ধা শৈলেন্দ্রনাথ মণ্ডলের লাশ উদ্ধার করে চিতলমারী থানা পুলিশ।

নিহত শৈলেন্দ্রনাথ মণ্ডল চিতলমারী উপজেলার সদর ইউনিয়নের খিলিগাতী গ্রামের মহেন্দ্রনাথ মণ্ডলের ছেলে। ঘের মালিককে গলাকেটে হত্যার পর টাকা নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় জেলার চিতলমারী উপজেলার বাখেরগঞ্জ থেকে অপূর্ব মণ্ডল (২৫) ও জেলার কচুয়া উপজেলার সাইনবোর্ড থেকে সুব্রত হালদার (৩২) নামের দুই শ্রমিককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃত অপূর্ব মণ্ডল ও সুব্রত হালদার জেলার মোড়েলগঞ্জ উপজেলার লক্ষীখালি গ্রামের বাসিন্দা। আটক সুব্রত ও অপূর্ব দৈনিক মজুরিতে গত বুধবার (৯ মার্চ) থেকে শৈলেন্দ্রনাথ বাড়িতে মৎস্য ঘেরের শ্রমিক হিসেবে কাজ করছিলেন।
 
চিতলমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এইচ এম কামরুজ্জামান খান জানান, রোববার সকালে চিতলমারী উপজেলার খিলিগাতী গ্রামের স্থানীয় বাসিন্দাদের খবরের ভিত্তিতে ওই গ্রামের একটি চিংড়ি ঘের থেকে শৈলেন্দ্রনাথ মন্ডলের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এর আগে শৈলেন্দ্রনাথ মণ্ডল শনিবার (১২ মার্চ) বিকালে তার মৎস্য ঘেরের মাছ বিক্রি করে বাড়ি এসে রাতে ওই দুই শ্রমিককে নিয়ে মৎস্য ঘেরে যান। এ সময়ে আটককৃতরা তাকে গলাকেটে হত্যা করে টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়।

নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য লাশ বাগেরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।  

বাগেরহাট পুলিশ সুপার কেএম আরিফুল হক জানান, ঘটনার সাথে জড়িত দুই শ্রমিককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে টাকা ছিনতাইয়ের জন্য বৃদ্ধাকে গলা কেটে হত্যার কথা স্বীকার করেছে।

news24bd.tv/ কামরুল