কার্যকর হচ্ছে না সাময়িক যুদ্ধ বিরতি 

কার্যকর হচ্ছে না সাময়িক যুদ্ধ বিরতি 

আসমা তুলি

দফায় দফায় রাশিয়া- ইউক্রেনের প্রতিনিধিদের আলোচনার পরেও সংঘাত কমছে না। কার্যকর হচ্ছে না সাময়িক যুদ্ধ বিরতিও। বরং বাড়ছে হতাহতের সংখ্যা। দীর্ঘ হচ্ছে ক্ষয়ক্ষতির তালিকাও।

বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, মস্কো-কিয়েভের যুদ্ধের ফল কূটনীতি নয়,  লড়াইয়ের মাধ্যমেই নির্ধারিত হবে।

রক্তপাত বন্ধের সমাধান খোঁজার সর্বশেষ প্রচেষ্টা হিসেবে রাশিয়া ও ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা বৃহস্পতিবার তুরস্কের আন্তালিয়াতে আলোচনায় বসেছিলেন। তবে সমাধান আসেনি। নিরস্ত্রীকরণে সম্মত হওয়া, ন্যাটোতে যোগদানের ইচ্ছা বাতিল এবং পূর্ব ইউক্রেনে দুটি অঞ্ছলকে স্বীকৃতি দিতে ইউক্রেনের ওপর চাপ দিয়েছে রাশিয়ার। তবে এসব দাবি প্রত্যাখ্যান করেছে জেলেনস্কি সরকার।


রাশিয়া এবং ইউরেশিয়া নিয়ে গবেষণা ফেলো (চাথাম হাউজ) ম্যাথিউ বুলেগু জানান, শুরুতে পশ্চিমাদের আপত্তি থাকলেও ইউক্রেনকে তাদের সামরিক সহায়তা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। এর মাধ্যমেই কিয়েভ তাদের সামরিক শক্তি বাড়াচ্ছে। যা রাশিয়ার মাথাব্যাথার কারণ হয়ে উঠেছে ।

আরও পড়ুন : অভিযান পুতিনের পরিকল্পনা অনুযায়ী চলছে 

গবেষণা প্রতিষ্ঠান ইন্টারন্যাশনাল ক্রাইসিস গ্রুপ-আইসিজি- র বিশেষজ্ঞরা মনে করেন,  রাশিয়া এখনো আশা করছে, ইউক্রেন তাদের দাবি মেনে নেবে। আর জেলেনস্কির চেষ্টা করছেন, কূটনৈতিক সমাধানের জন্য পশ্চিমা দেশগুলোকে আরও সম্পৃক্ত করতে। কারণ তাঁর সরকার টিকে গেলে নিরাপত্তা নিশ্চয়তার প্রয়োজন পড়বে।  

আরও পড়ুন : বলিউডের গোপন তথ্য ফাঁস করলো জেরিন খান!

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, উভয় পক্ষ যখন মানবিক করিডর বা  অস্থায়ী যুদ্ধবিরতির জন্য চেষ্টা চালাচ্ছে, তখন এই সংকটের কূটনৈতিক সমাধানের  চিন্তা করা কঠিন। তাই মস্কো-কিয়েভ শিগগিরই মতৈক্যে পৌঁছাতে না পারলে যুদ্ধ চলবে বলে মনে করেন তারা।
news24bd.tv/আলী   

;