চীনের কাছে অস্ত্র ও আর্থিক সহযোগিতা চেয়েছে রাশিয়া

চীনের কাছে অস্ত্র ও আর্থিক সহযোগিতা চেয়েছে রাশিয়া

আসমা তুলি

চীনের কাছে অস্ত্র ও আর্থিক সহযোগিতা চেয়েছে রাশিয়া। যুক্তরাষ্ট্র এমন দাবি করেছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

সেইসঙ্গে এ নিয়ে চীনকে সতর্কও করেছে ওয়াশিংটন। তবে মস্কোর অস্ত্র চাওয়ার বিষয়টি নাকচ করেছে চীন।

দাবি করেছে ইউক্রেনের উত্তেজনা কমিয়ে আনার দিকেই এখন বেশি মনোযোগী বেইজিং।

মাসখানেক আগেই রাশিয়ার প্রসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও চীনের প্রসিডেন্ট শি জিনপিং দুই দেশের মধ্যে একটি সীমাহীন বন্ধুত্বের চুক্তি করেন।

ইউক্রেন যুদ্ধের জেরে রাশিয়া পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়লেও  মস্কোর সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্ক অব্যাহত রেখেছে বেইজিং।

ফলে চীন-রাশিয়ার নানা পদক্ষেপের ওপর কড়া নজর রাখছে বাইডেনের প্রশাসন।

ইউক্রেনে রুশ অভিযানের প্রায় তিন সপ্তাহের মাথায় চীনের কাছে রাশিয়ার সামরিক ও আর্থিক সহায়তা চাওয়ার খবর প্রকাশ করেছে কয়েকটি সংবাদ মাধ্যম।

জানিয়েছে, এমন দাবি তুলেছে যুক্তরাষ্ট্র। বলা হয়, ইউক্রেনে আগ্রাসনের শুরু থেকেই চীনা সরঞ্জামের জন্য বেইজিংকে অনুরোধ করে আসছে রাশিয়া। তবে কী ধরনের সরঞ্জাম চাইছেন তা উল্লেখ হয়নি। মস্কোর অনুরোধের পর চীন সাহায্য করার  প্রস্তুত হতে পারে বলেও ইঙ্গিতও দেওয়া হয়েছে।

তবে রাশিয়াকে কোনও সহায়তা দিলে চীনকে কঠিন পরিণতি ভোগ করতে হবে বলে সতর্ক করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

চীন এখন পর্যন্ত রাশিয়া-ইউক্রেন সংঘাতে নিজেকে নিরপেক্ষ দেশ হিসেবে ধরে রাখার চেষ্টা করছে।

দেশটিতে রুশ আগ্রাসনের নিন্দাও প্রকাশ করেনি বেইজিং।

বেইজিংয়ের দাবি, চীনের কাছে এমন কোনো আবদার রাশিয়ার পক্ষ থেকে আসেনি।

চীন জানায়, অস্ত্র দেওয়া নয়, যুদ্ধ বন্ধে মধ্যস্থতায় আগ্রহী শি জিন পিং সরকার।

news24bd.tv তৌহিদ

;