মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ১৫ মিনিট আগে

নেইমারের দিকে তাকিয়ে বিশ্ব

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

নেইমারের দিকে তাকিয়ে বিশ্ব

রাশিয়া বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিয়েছে লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনা এবং ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর পর্তুগাল। দুই সুপারস্টারের এমন বিদায়ে বিশ্বের কোটি কোটি ভক্ত হতাশ হয়েছেন। দর্শকদের কাছে সবচেয়ে বেশী জনপ্রিয় তারকা জুটির বিদায়ের পর নেইমারের ব্রাজিলের শেষ আট যাওয়া নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন অনেকেই।

হেভিওয়েট দলের তকমা এবার কাজে দিচ্ছে না। তাইতো মেসি, রোনালদোর মত তারকারা বিদায়ের পর এবার নেইমারকে নিয়েই আশায় বুক বেঁধেছেন বিশ্বের ফুটবলপ্রেমী। মেক্সিকোর বিরুদ্ধে ওয়ান্ডার কিডের ওয়ান্ডারফুল পারফরম্যান্সেই মজতে চাইছে দুনিয়া।


আরও পড়ুন: টাইব্রেকে ডেনমার্ককে হারিয়ে কোয়ার্টারে ক্রোয়েশিয়া

বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে প্রতিপক্ষ সুইসজারল্যান্ড। বিপক্ষের ট্যাকেলে পর্যদুস্ত নেইমার একাধিকবার পড়ে গিয়েছিলেন। শুরু হয়েছিল কড়া সমালোচনা।

কোস্টারিকার বিরুদ্ধে ম্যাচেও জারি ছিল একই ছবি। বক্সে প্লে অ্যাক্টিংয়ের নাটক করে পেনাল্টি আদায়ের চেষ্টা ফ্লপ। সোশ্যাল মিডিয়ায় শুরু ট্রোলের বন্যা। হতাশ সারা বিশ্বের নেইমারপ্রেমীরা। তবুও এই ম্যাচে শেষবেলায় পড়ে পাওয়া চোদ্দ আনার মতো একটা গোল অনেকটা ভরসা দিয়েছিল সাম্বা তারকাকে।

শেষ ম্যাচে সার্বিয়ার বিরুদ্ধে খোলস ছেড়ে বেরোলেন। অকারণে পড়ে যাওয়া কম। মাথাও অনেক ঠান্ডা। এবার প্রি-কোয়ার্টারে প্রতিপক্ষ মেক্সিকো। ফের আশায় বুক বাঁধছেন ব্রাজিল সমর্থকরা।

এই বিশ্বকাপে এখনও পর্যন্ত সবচয়ে বেশি গোলের সুযোগ তৈরি করেছেন নেইমারই। সর্বাধিক ১৭ বার গোলে শট নিয়েছেন ওয়ান্ডার কিড। শেষ সার্বিয়া ম্যাচে ৯৭১৬ মিটার দৌড়েছেন। ঘণ্টায় গড়ে স্পিড ছিল ৩২.১৮ কিমি। ম্যাচের ৩৬ শতাংশ সময় ডিফেন্সে নেমে সাহায্য করেছেন দলকে।

কোস্টারিকা ও সুইসজারল্যান্ডের বিরুদ্ধে ছবিটা ছিল সম্পূর্ণ ভিন্ন। কোস্টারিকার বিরুদ্ধে দৌড়েছিলেন ৯৪১১ মিটার, সুইসদের বিরুদ্ধে ৯১১৭ মিটার। শুধু তাই নয় আগের দু'ম্যাচেই পড়ে গিয়ে অনেক সময় নষ্ট করেছিলেন। আক্রমণে উঠতে গিয়ে সময় দেননি ডিফেন্সেও। কোস্টারিকার বিরুদ্ধে মাথা গরম করে দেখেছিলেন হলুদ কার্ড। সার্বিয়ার বিরুদ্ধে একবারও মাথা গরম করেননি। পরিসংখ্যানেই স্পষ্ট ৩ ম্যাচেই অনেক পরিণত নেইমার।

মেসি-রোনালদো-ইনিয়েস্তাদের অভিযান ১৬-র দৌড়েই শেষ। এই চাপ কী প্রভাব ফেলবে ওয়ান্ডার কিডের পারফরম্যান্সে। নাকি বিশ্বের দামি ফুটবলার এই মঞ্চেই নিজের জাদু দেখাবেন তা জানার অপেক্ষায় বিশ্ব।


(নিউজ টোয়েন্টিফোর/কামরুল)

মন্তব্য