হঠাৎ সৌদি-আমিরাত সফরে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী
হঠাৎ সৌদি-আমিরাত সফরে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

সংগৃহীত ছবি

হঠাৎ সৌদি-আমিরাত সফরে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত রাশিয়ার বিরুদ্ধে প্রায় ৩ হাজার ২টি নতুন নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে। রাশিয়ার ওপর একের পর এক নিষেধাজ্ঞার ফলে ইউরোপের অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক বাজারে বাড়তে থাকে জ্বালানির তেলের দাম। এই অবস্থায় জ্বালানির দামে লাগাম টানতে মধ্যপ্রাচ্যের উপসাগরীয় অঞ্চলের দুই দেশ সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাত সফরে গিয়েছেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।

বুধবার সকালে আমিরাতের রাজধানী আবুধাবিতে পৌঁছান বরিস জনসন; সেখানে দেশটির যুবরাজ মোহাম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ানের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে দুপুরের পর সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে বৈঠক বসতে সৌদির পথে রওনা হন তিনি।

বিকেলের মধ্যেই তিনি সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদে পৌঁছেছেন বলে নিশ্চিত করেছে দেশটির রাষ্ট্রায়ত্ত বার্তাসংস্থা এসপিএ।

রাশিয়ার জ্বালানির পর নির্ভরশীলতা কমানো এবং বিকল্প জ্বালানি জোট গঠনও এই সফরের অন্যতম উদ্দেশ্য বলে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলোকে নিশ্চিত করেছে ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিট।

এর আগে গত ৯ মার্চ একই অভিপ্রায়ে সৌদি যুবরাজ মোহম্মদ বিন সালমান ও আমিরাতের যুবরাজ মোহম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ানের সঙ্গে আলোচনার জন্য টেলিফোনে চেষ্টা করেছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন; কিন্তু সেই চেষ্টা সফল হয়নি। দুই যুবরাজের কাউকেই ফোনে পাননি তিনি।

এক্ষেত্রে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী অবশ্য প্রাথমিকভাবে সফল; দুই যুবরাজের সঙ্গেই তার সাক্ষাৎ ও বৈঠক হয়েছে। তবে বৈঠকের ফলাফল সম্পর্কে এখনও কিছু বলেনি যুক্তরাজ্যের সরকার।

সূত্র: স্পুটনিক, ব্লুমবার্গ ও এসপিএ।

news24bd.tv/আলী