বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ১১ মিনিট আগে

জাপানকে হারিয়ে কোয়ার্টারে বেলজিয়াম

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

জাপানকে হারিয়ে কোয়ার্টারে বেলজিয়াম

রাশিয়া বিশ্বকাপের নকআউট পর্বে আশা জাগিয়েও বিদায় নিল এশিয়ার দেশ জাপান। খেলার দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে ২-০ গোলে এগিয়ে গেলেও শেষ পর্যন্ত ৩-২ গোলে বেলজিয়ামের কাছে হেরে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিতে হলো জাপানকে। আগামী ৬ জুলাই কোয়ার্টার ফাইনালে ব্রাজিলকে মোকাবেলা করবে বেলজিয়াম। জয়সূচক গোলটি আসে খেলার শেষ মিনিটে।

পুরো ম্যাচের সমস্ত নাটকীয়তা যেন শেষ কয়েক সেকেন্ডের জন্যই জমিয়ে রেখেছিল বেলজিয়াম আর জাপান ম্যাচ। গোলশূন্য অবস্থায় প্রথমার্ধ শেষ, দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে ২-০ গোলে জাপানের এগিয়ে যাওয়া, পরে ২-২ গোলে সমতা, খেলা যখন অতিরিক্ত সময়ে গড়ানোর অপেক্ষায় ঠিক তখনই জয়সূচক গোল করে বেলজিয়াম কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করলো। যোগ করা সময়ের  ৩০ সেকেন্ড বাকি থাকতেই বিদ্যুৎ গতির এক কাউন্টার অ্যাটাকে জাপানের জালে বল জড়িয়ে দিলো বেলজিয়ামের নাসির শাদলি।

ফলে একেবারে শেষ মুহূর্তে এসে জাপানের কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠার স্বপ্ন ধুলোয় মিশে গেল।

এদিকে পুরো ম্যাচে আক্রমনের পর আক্রমন চালিয়েও জাপানের রক্ষণভাগের শক্ত প্রাচিরের কারণে ব্যর্থ হয় বেলজিয়াম। সেই তুলনায় জাপানের আক্রমন আসে অনেক কম। তবে কম আক্রমনেও বেলজিয়ামের জালে দুটি বল ঢুকিয়ে দেয় এশিয়ার দেশটি। দ্বিতীয়ার্ধের ১৫ মিনিট যাবার পর একাদশে পরিবর্তন আনেন বেলজিয়াম কোচ। এরপরই বেড়ে যায় ইউরোপের দেশটির আক্রমনের ধার। দুই গোল পরিশোধ করার পর দ্বিতীয়ার্ধের শেষ বাশি পড়ার কয়েক সেকেন্ড আগে জয়সূচক গোলটি করে বেলজিয়াম।

বিরতির পর সময় গড়ানোর সঙ্গে পাল্টেছে এই ম্যাচের চিত্রনাট্য। ৪৮ মিনিটে বেলজিয়ামের ডিফেন্ডার ইয়ান ভার্তোনোর ভুলের সুযোগে গোলরক্ষক থিবো কোর্তোয়াকে ফাঁকি দিয়ে গোল করেন গেঙ্কি হারাগুচি। ১-০ গোলে এগিয়ে যায় জাপান। ঠিক এর ৫ মিনিট পরই জাপানের এগিয়ে যাওয়ার ব্যবধান হয় ২-০! শিনজি কাগাওয়ার পাস থেকে ২৫ গজি শটে গোল করেন তাকাশি ইনুই।

দুই গোল ব্যবধানে পিছিয়ে পড়ার পর বেলজিয়ামের সমর্থকেরা বাড়ির পথ দেখতে পেয়েছিলেন। কারণ ১৯৭০ বিশ্বকাপে পশ্চিম জার্মানি-ইংল্যান্ড ম্যাচের পর কোনো দলই ন্যূনতম দুই গোল ব্যবধানে পিছিয়ে পরে ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি। কিন্তু পরিসংখ্যান যে স্রেফ সংখ্যা তা প্রমাণ করে দিয়েছেন লুকাকু-ভার্তোনে-ফেলাইনিরা। ৬৯ মিনিটে ভার্তোনের গোলের পর ৭৪ মিনিটে গোল করে বেলজিয়ামকে সমতায় ফেরান মারুয়ানে ফেলাইনি। এরপর যোগ করা সময়ের ৪ মিনিটে কাউন্টার অ্যাটাক থেকে বেলজিয়ামকে জয়সূচক গোল এনে দেন শাদলি।

মন্তব্য